প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :      শতভাগ রফতানিমুখী চামড়া পণ্য শিল্প প্রতিষ্ঠানের শ্রমিককে দিয়ে আগামী ছয় মাস একদিনে সর্বোচ্চ চার ঘণ্টা অতিরিক্ত কাজ (ওভারটাইম) করানো যাবে। একই সঙ্গে অতিরিক্ত সময় কাজের জন্য শ্রমিককে নিয়মানুযায়ী সাধারণ হারের দ্বিগুণ ভাতা দিতে হবে বলে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় থেকে গত ১৫ মার্চ (বৃহস্পতিবার) এ বিষয়ে আদেশ জারি করা হয়েছে।

 

শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব এটিএম সাইফুল ইসলাম স্বাক্ষরিত আদেশে বলা হয়েছে, শ্রম আইন ২০০৬-এর ১০০, ১০২ ও ১০৫ ধারা থেকে আগামী ছয় মাসের জন্য চামড়া শিল্প প্রতিষ্ঠানকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। ধারাগুলো (১০০, ১০২ ও ১০৫) অনুযায়ী শ্রমিকদের দিয়ে দৈনিক আট ঘণ্টার বেশি কাজ করানো যায় না।

তবে কোনো কোনো ক্ষেত্রে তা ১০ ঘণ্টা পর্যন্ত হতে পারে। সাপ্তাহিক হিসাবে সেটি ৪৮ ঘণ্টা, তবে মোট ৬০ ঘণ্টার বেশি হবে না। আবার বার্ষিক হিসাবে গড়ে সাপ্তাহিক ৫৬ ঘণ্টার বেশি হবে না।

তবে মন্ত্রণালয়ের আদেশে আগামী ১ এপ্রিল থেকে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এই ধারাগুলো থেকে চামড়া শিল্প অব্যাহতি পেল।

প্রত্যেক শ্রমিককে পর্যায়ক্রমে প্রতি সপ্তাহে একদিন করে সাপ্তাহিক ছুটি দিতে হবে। বাংলাদেশ শ্রম আইন-২০০৬ ও শ্রম বিধিমালা-২০১৫ এর বিধি-বিধান অনুসরণ করতে হবে।

রফতানি মৌসুমে অর্ডার অনুযায়ী ক্রেতাদের কাছে পণ্য সরবরাহের জন্য মালিকদের অনুরোধে ওভারটাইমের সময় বাড়ানো হয়েছে বলে জানা গেছে।