প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট : মধ্যপাড়া কঠিন শিলা প্রকল্প থেকে পাথর উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়েছে। গত ফেব্রুয়ারি মাসে পাথর উৎপাদনে লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে ১০ হাজার মেট্রিকটন বেশি উৎপাদন হয়েছে।

 

দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলার মধ্যপাড়া কঠিন শিলা প্রকল্পে গত ফেব্রুয়ারিতে পাথর উত্পাদনের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৮০ হাজার মেট্রিক টন। মাস শেষে হিসাব করে খনি কর্তৃপক্ষ বলছে, প্রায় ৯০ হাজার মেট্রিক টন পাথর উৎপাদিত হয়েছে।

 

সরেজমিনে জানা গেছে, ঠিকাদারিপ্রতিষ্ঠান জার্মানীয়া-ট্রেস্ট কনসোর্টিয়াম (জিটিসি) ফেব্রুয়ারিতে তিন শিফটে ২৩ দিন (সাপ্তাহিক ও সরকারি ছুটি ব্যতীত) পাথর উত্তোলন করেছে। যার গড় উৎপাদন প্রতিদিন প্রায় চার হাজার মেট্রিক টন। ফলে ওই মাসে জিটিসির পাথর উত্তোলনের যে লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা ছিল, তা ছাড়িয়ে গেছে। পাশাপাশি পুরোদমে চলছে খনির উন্নয়ন ও নতুন স্টোপ (গর্ত) নির্মাণকাজ।

 

খনি সূত্রে জানা গেছে, মধ্যপাড়া পাথরের গুণগত মান উন্নত হওয়ায় সরকারি-বেসরকারি অবকাঠামো নির্মাণকাজে এর চাহিদা বেশি। আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে এই খনির পাথরের দাম কয়েক দফা বাড়ানো হয়েছে। এরপরও এর বিক্রি বেড়েছে।

 

জিটিসির মহাব্যবস্থাপক (জিএম) জাবেদ সিদ্দিকি জানান, এর আগে এক বছরে খনির গর্ভে একসঙ্গে এত স্টোপ নির্মাণের নজির নেই।

 

তিনি বলেন, ‘বিদেশি খনি বিশেষজ্ঞদল, দক্ষ শ্রমিক ও দেশি প্রকৌশলীরা রাত-দিন কাজ করছেন। অত্যাধুনিক যন্ত্রপাতি স্থাপন করা হয়েছে। যেভাবে পাথর উত্তোলন করা হচ্ছে, তাতে শিগগির এই খনি সরকারের লাভজনক প্রতিষ্ঠানে পরিণত হবে।’