প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :       প্রেমে প্রত্যাখ্যাত হয়ে যুবতীকে অশ্লীল ছবি ও কুপ্রস্তাব পাঠানোর অভিযোগে কলকাতার এক যুবককে গ্রেফতার করল পুলিশ৷ পুলিশ জানিয়েছে, ধৃতের নাম রূপক দাস৷ বাড়ি কলকাতার বেহালায়৷ সে বেহালা কলেজের হিএসসি তৃতীয় বর্ষের ছাত্র।

 

পুলিশ সূত্রের খবর, ফেসবুকের মাধ্যমে পরিচয়৷ চ্যাটিংয়ে মাধ্যমে এগোয় দু’তরফের কথাবার্তা৷ সেখান থেকেই ফোন নম্বর দেওয়া নেওয়া। ভাল বন্ধু হিসেবেই সম্পর্ক গড়ে ওঠে কলকাতার বেহালার বাসিন্দা রূপক দাস ও কোলাঘাটের যুবতীর। অভিযোগ, কিছুদিন যেতে না যেতেই সেই সম্পর্ককে প্রেমের রূপ দিতে চায় রূপক। কিন্তু তা অস্বীকার করেন যুবতী।

 

অভিযোগ, প্রেমে প্রত্যাখ্যাত হয়ে কিছুদিনের জন্য শান্ত হলেও তার পরে রূপক যুবতীকে বারবার বিয়ের প্রস্তাব দিতে থাকেন। তাতেও রাজি না হওয়ায় দীর্ঘদিন ধরে ফোনে অশ্লীল মেসেজ ও অশ্লীল ছবি যুবতীর ফেসবুক মেসেঞ্জারে পাঠায়৷ রাত হলেই নোংরা নোংরা কথা বলা হত বলেও অভিযোগ। বাধ্য হয়ে যুবতী মোবাইল নম্বর বদলে ফেলেন৷ ওই যুবতীর পরিবারের তরফে শুক্রবার কোলাঘাট বিট হাউস থানায় অভিযোগ করেন যুবকের বিরুদ্ধে।

কোনরকম যোগাযোগ করতে না পেরে কলকাতা থেকে কোলাঘাটে সরাসরি রূপক শনিবার সকালে যুবতীর বাড়িতে এসে চড়াও হয়।আতঙ্কিত হয়ে পড়ে নির্যাতিতার পরিবারের সবাই। তারপর স্থানীয় থানায় খবর দেওয়া হলে পুলিশ গিয়ে যুবতীর বাড়ি থেকেই অভিযুক্ত যুবককে গ্রেফতার করে৷