প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :  তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, শিল্প-সাহিত্য-সংস্কৃতি চর্চার শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখতে জঙ্গি দমন এবং জঙ্গিসঙ্গীদের ক্ষমতা ও রাজনীতির বাইরে রাখতে হবে। আজ বুধবার দুপুরে রাজধানীর জাতীয় জাদুঘরে বেগম সুফিয়া কামাল মিলনায়তনে ‘কবিতাঙ্গন’ আয়োজিত জাতীয় কবিতা উৎসব-২০১৮ উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।

 

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অসাম্প্রদায়িকতার ছাতার তলেই কবিরা নির্ভয়ে কবিতা লিখছেন, শিল্পী-সাহিত্যিকরা তাদের সৃষ্টিশীল চর্চা অব্যাহত রেখেছেন। মননশীলতার এই চর্চার ধারা যাতে স্তব্ধ না হয়, সেজন্য কখনই রাজাকার-জঙ্গি-যুদ্ধাপরাধীদের বাংলাদেশে ক্ষমতায় আসতে দেওয়া যায় না।’

 

জাসদ সভাপতি বলেন, ‘বিএনপি-খালেদা চক্র নির্বাচনের নামে অপরাধীদের হালাল করতে চায়। তাদের মুখে গণতন্ত্র, কিন্তু আঁচলে রাজাকার, জঙ্গি ও আগুনসন্ত্রাসীরা। এ কারণে এদের বর্জন ও বিচারের বিকল্প নেই।’

 

এ সময় কবিদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে হাসানুল হক ইনু বলেন,‘কবিরা মানুষের হৃদয় স্পর্শ করতে চায়, ঈশ্বরকে ছুঁতে চায়। তারা কখনও রাজাকার হয় না, যুদ্ধাপরাধী হয় না, জঙ্গিসঙ্গী হয় না। তাদেরকে এবার শুধু জঙ্গির বিরুদ্ধে নয়, জঙ্গিসঙ্গীদের বিরুদ্ধেও কলম হাতে সোচ্চার হতে হবে।’

 

কবিতাঙ্গণের সম্পাদক কবি সর্দার আজাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যর মধ্যে বক্তৃতা করেন ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক আব্দুল মান্নান চৌধুরী, কবি অসীম সাহা, আসলাম সানী, পারভেজ বাবুল, ভারতের কবি অমৃত মাইতি।