প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :  ফরিদপুরের সালথা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. মোবাশ্বর হাসান মাথায় আঘাত পেয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছে। তার সঙ্গে গাড়িচালক হাসমত আলী ও অফিস সহায়ক রফিক সিকদারও আহত হয়েছেন।

 

আজ বুধবার সকালে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

 

 

ইউএনও মোবাশ্বর হাসান বর্তমানে ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তিনি আশঙ্কামুক্ত বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট চিকিৎসক।

 

 

সালথা থানার ওসি দেলোয়ার হোসেন খান জানান, ফরিদপুরের জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সভায় অংশ নিতে ইউএনও হাসান জিপে করে ফরিদপুরে যাচ্ছিলেন। আজ সকাল সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার রসুলপুর-দিয়াপাড়া এলাকায় চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেললে জিপটি সড়কের বাম পাশের একটি গাছের সঙ্গে গিয়ে ধাক্কা খায়। এতে ইউএনওসহ তিনজন আহত হন। তাদেরকে উদ্ধার করে ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

 

 

ইউএনও’র সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হওয়ার ঘটনা জেনে জেলা প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা হাসপাতালে ছুটে যান। তারা তাঁর চিকিৎসার খোঁজ-খবর নেন।

ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের জ্যেষ্ঠ সার্জারি বিশেষজ্ঞ ডা. মোল্লা শরফুদ্দীন আহমদ বলেন, ‘প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। ইউএনও হাসান বর্তমানে আশঙ্কামুক্ত।