প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :      জম্মু ও কাশ্মীরের কাঠুয়ায় শিশু আসিফা বানুর ধর্ষণ নিয়ে উত্তাল ভারত। এরইমধ্যে রাজধানী দিল্লির এক নারী ধর্ষণের অভিযোগ তুলেছেন। দিল্লির আমন বিহারের ১৯ বছরের ওই তরুণীর অভিযোগ তাকে অপহরণ করে একটি বাড়িতে আটকে রেখে ১০ দিন ধরে ধর্ষণ করা হয়।

 

আর অভিযোগের তীর ওই তরুণীরই এক সময়কার প্রতিবেশী কুলদীপ নামে ৩০ বছর বয়সের এক যুবকের দিকে। ওই যুবককে ধরতে অভিযান চালাচ্ছে পুলিশের দুটি দল।

দিল্লির সুলতানপুরীতে এক সময়ে একইপাড়ায় থাকতো ওই তরুণী ও কুলদীপের পরিবার। এফআইআরে ওই তরুণী জানান, বছর খানেক আগে কুলদীপের সঙ্গে তার বন্ধুত্ব হয়েছিল।

ডেপুটি কমিশনার এম এন তিওয়ারি বলেন, গেলো ৩০ মার্চ কুলদীপের সঙ্গে বেরিয়েছিলেন তরুণীটি। কুলদীপের সঙ্গেই রাত প্রায় সাড়ে ১১টা পর্যন্ত ছিলেন।

ওই তরুণীর ভাষ্য, কুলদীপ তাকে নিজের বাড়িতে নিয়ে গিয়ে একটি ঘরে আটকে রাখে। হাত-পা-মুখ বেঁধে বার বার ধর্ষণ করে তাকে। গত ৯ এপ্রিল তিনি সেখান থেকে পালাতে সক্ষম হন। ওইদিনই বাবার সঙ্গে থানায় গিয়ে এফআইআর দায়ের করেন।

তবে পুলিশের ডিসি তিওয়ারির বক্তব্য, তরুণীটি ১০ দিন ধরে নিখোঁজ থাকা সত্ত্বেও নিরুদ্দেশ হওয়া বা অপহরণের কোনো অভিযোগ দায়ের করেনি তার পরিবার। এই বিষয়টিও আমরা খতিয়ে দেখছি।

কুলদীপের পরিবার ও তাদের প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন, ওই বাড়িতে কাউকে আটকে রাখার কথা তারা জানতেই পারেননি। তবে কুলদীপের খোঁজ পেতে তার পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছে পুলিশ।