প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :    সৌদি আরবের হাইল জেলায় অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধ আরো এক বাংলাদেশির মৃত্যু হলো। নিহত ব্যক্তির নাম আনিসুর রহমান বাবুল। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে হাসপাতালের চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন বলে জানান তার বড় ভাই আব্দুল লতিফ।

 

নিহত আনিসের গ্রামের বাড়ি ফেনি জেলার গাংরা গ্রামে। তার বাবার নাম খলিলুর রহমান।

এর আগে একই ঘটনায় ছয় বাংলাদেশির মৃত্যু হয়। তারা হলেন- বসন্তপুর গ্রামের আবদুল হকের দুই ছেলে এমরানুল হক সোহেল (৩৪) ও ইমামুল হক মুন্না (২২); চৌদ্দগ্রামের গুণবতী ইউনিয়নের দক্ষিণ শ্রীপুর গ্রামের সিরাজুল ইসলামের ছেলে মো. সোহেল (৩০), ফেনীর বিরিঞ্চি এলাকার ইলিয়াস মেম্বারের বাড়ির রফিকুল ইসলামের ছেলে মহিউদ্দিন রাশেদ (৩৫) এবং লক্ষ্মীপুর জেলার কমলনগর উপজেলার করইতোলা বাজার সংলগ্ন চর লরেন্স গ্রামের নেছার আহম্মদের দুই ছেলে জসিম উদ্দিন (২৬) ও মো. ইব্রাহিম (২৩)।

জানা গেছে, গতকাল বুধবার ভোররাতে সৌদি আরবের হাইল জেলার হোলাইফা শহরের এক বাসায় এক অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ঘটনাস্থল থেকেই ছয় বাংলাদেশির লাশ উদ্ধার করা হয়। আর আনিসুর রহমান বাবুলকে অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় হাইলের কিং খালিদ হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়।

হাইল থেকে প্রবাসী বাংলাদেশি আজিজ উল্লাহ সেলিম গণমাধ্যমকে বলেন, নিহত সাতজন বাংলাদেশি ওই বাসায় ভাড়া থেকে শহরে চাকরি করতেন। মঙ্গলবার রাতে রান্না ও খাওয়া শেষে একই ঘরে তারা ঘুমিয়ে পড়েন। কেউ একজন রুমের বারান্দায় সিগারেট খেয়ে ফেলে দেয়। ওই আগুন বিদ্যুতের তারে লেগে পুরো রুমে ছড়িয়ে পড়ে।