প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :     দাবি করা ঘুষের টাকার কিস্তি হিসাবে পাঁচ লাখ টাকাসহ হাতেনাতে গ্রেপ্তার নৌ-পরিবহন অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী এস এম নাজমুল হককে এক দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার শুনানি শেষে এই রিমান্ড মঞ্জুর করেন ঢাকা মহানগর হাকিম ফাহাদ বিন আমিন চৌধুরী। গতকাল বুধবার তাকে ৭ দিনের রিমান্ডে নেওয়ার জন্য আদালতে আবেদন দাখিল করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

 

প্রসঙ্গত, গত ১২ এপ্রিল বিকেলে রাজধানীর সেগুনবাগিচায় সেগুন হোটেল থেকে গ্রেপ্তার হন নাজমুল। নাটকীয় কায়দায় আগে থেকেই উত পেতে থাকা দুদকের উপ-পরিচালক নাসিম আনোয়ারের নেতৃত্বে একটি দল ঘুষের টাকাসহ তাকে হাতেনাতে ধরে ফেলে। পরদিন শুক্রবার তাকে আদালতে হাজির করা হয়। দুদকের আবেদনের প্রেক্ষিতে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

এজাহার সূত্রে দেখা যায়, মেসার্স সৈয়দ শিপিং লাইন্সের এমভি প্রিন্স অব সোহাগ নামীয় যাত্রীবাহী নৌযানের রিসিভ নকশা অনুমোদন ও নতুন নৌযানের নামকরণের অনাপত্তি পত্র সম্পর্কিত অনুমোদনপ্রাপ্তির জন্য নৌ অধিদপ্তরে গেলে নৌ-প্রকৌশলী নাজমুল ১৫ লাখ টাকা ঘুষ দাবি করে। সৈয়দ শিপিং লাইনের সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি বিষয়টি দুর্নীতি দমন কমিশনকে অবহিত করেন। পরে গত বৃহস্পতিবার বিকেল পৌনে ৬টায় দাবি করা ঘুষের টাকার কিস্তি  বাবদ পাঁচ লাখ টাকা গ্রহণের জন্য আসামি রাজধানীর সেগুন হোটেলে আসেন। এ সময় ওত পেতে থাকা দুদকের বিশেষ দলের সদস্যদের কাছে ঘুষের টাকাসহ হাতেনাতে ধরা পড়েন তিনি।
এরপরে দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয় ঢাকা-১ এর সহকারি পরিচালক আবদুল ওয়াদুদ বাদী হয়ে রাজধানীর রমনা মডেল থানায় আসামি নাজমুলের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।