প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :     ভারতের শাসক দল বিজেপির শীর্ষ নেতা অমিত শাহর বিরুদ্ধে হওয়া মামলায় বিচারক ছিলেন বি লয়া। বিচার চলাকালেই লয়া হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। সম্প্রতি তার মৃত্যুর ঘটনা তদন্তের একটি আবেদন খারিজ করে দিয়েছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট।

 

প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রের নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের বেঞ্চ বৃহস্পতিবার ওই আবেদন খারিজ করে দেন বলে জানিয়েছে রয়টার্স।

২০০৫ সালে গুজরাটের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী থাকার সময় অমিত শাহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে ‘বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড’ চালানোর নির্দেশ দিয়েছিলেন এমন অভিযোগে নিম্ন আদালতে মামলাটি দায়ের হয়েছিল।

দায়িত্ব নেওয়া নতুন বিচারক বিজেপিপ্রধানকে অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দেন। রাজনৈতিক চাপের কারণেই লয়ার মৃত্যু হয়েছিল বলে সেসময় ইঙ্গিত দিয়েছিলেন তার পরিবারের সদস্যরা। সন্দেহজনক ওই ঘটনা নিয়ে সেসময় বিরোধীরাও বেশ সরব ছিল।