প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :    বিজেপির সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করলেন ভারতের প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী যশোবন্ত সিনহা। অটল বিহারী বাজপেয়ী সরকারের মন্ত্রী ছিলেন তিনি। এই ঘটনা নরেন্দ্র মোদী সরকারে বড় ধরনের বিপর্যয় বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

 

প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী যশোবন্ত সিনহা বলেন, ভারতের গণতন্ত্র বিপদের মুখে পতিত হয়েছে।

তিনি জানিয়েছেন, আজ শনিবার থেকে বিজেপির সঙ্গে সব সম্পর্ক ছিন্ন করলেন তিনি। বিহারের পাটনায় এক অনুষ্ঠানে এ কথা জানান তিনি।

‘পার্লামেন্ট লগজ্যাম’র জন্য মোদী সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন তিনি।

বর্ষীয়ান এই নেতা বলেন, আমি আগেও প্রকাশ্যেই বলেছি, অটল বিহারী বাজপেয়ী প্রধানমন্ত্রী থাকাকালীন আমাদের সবাইকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল যাতে সংসদ চালু থাকে। আমাদের বলা হয়েছিল, বিরোধীরা যেকোনো ইস্যু তুলতে চাইলে তাদের যেন সুযোগ দেওয়া হয়।

তাঁর অভিযোগ, নরেন্দ্র মোদীর আমলে সরকার কোনোদিনই বিরোধীদের সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করেনি। সরকার কোনো ইস্যু নিয়েই চিন্তিত নয়, বরং পার্লামেন্ট চলছে না এটা জেনেই তারা বেশ খুশি।

যশোবন্ত জানান, তিনি অন্য কোনো দলের সদস্য হচ্ছেন না। তবে, গণতন্ত্র বাঁচাতে চুপ করে বসে থাকবেন না তিনি।