প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :      পাবনায় স্কুলের দেয়াল ধ্বসে আফরিন নাহার (৯) নামে এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। এ সময় গুরুতর আহত হয় স্কুলের আরো ৩ শিশু শিক্ষার্থী। তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আজ শনিবার সকালে পাবনার পৌর এলাকার শিবরামপুর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। দুপুরে রাজশাহীতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আহতদের মধ্যে এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়।

 

নিহত আফরিন পাবনা পৌর এলাকার শিবরামপুর মহল্লার আইয়ুব আলীর মেয়ে।

স্কুলের প্রধান শিক্ষক এনামুল কবির সিদ্দিকী জানান, সংস্কার কাজের জন্য স্কুলের দেয়াল ঘেঁষে বালুসহ নির্মাণ সামগ্রী রেখেছিলেন ঠিকাদার। সকাল সাড়ে ৯টার দিকে স্কুলের দেয়ালের পাশ দিয়ে কয়েকজন শিক্ষার্থী হেঁটে যাওয়ার সময় দেয়ালটি শিক্ষার্থীদের ওপরে ধ্বসে পড়ে। এতে দ্বিতীয় শ্রেণীর শিক্ষার্থী আফরিন নাহার (৯), প্রথম শ্রেণীর শিক্ষার্থী আফসানা খাতুন (৭) ও ইসমাইল (৬) এবং শিশু শ্রেণীর শিক্ষার্থী আল আমিন (৫) গুরুতর আহত হয়। আহত শিক্ষার্থীদের উদ্ধার করে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হওয়ায় আফরিন ও ইসমাইলকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। রাজশাহীতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ দুপুরে আফরিন মারা যায়।

এদিকে দেয়াল চাপায় শিক্ষার্থী আহত হওয়ার খবর পেয়ে হাসপাতালে আহত শিক্ষার্থীদের দেখতে যান পাবনার জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন ও জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুস সালাম। সেই সঙ্গে তাদের চিকিৎসার খোঁজ-খবর নেন তারা।

আফরিনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন জানান, খবর পাওয়ার সাথে সাথে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করি ও আহতদের চিকিৎসার খোঁজ খবর নিয়েছি। তাৎক্ষণিকভাবে আহতদের চিকিৎসার খরচ বাবদ শিক্ষার্থী প্রতি ১০ হাজার টাকা করে সহায়তা দিয়েছি। সেই সাথে দেয়াল ধ্বসের ঘটনা খতিয়ে দেখে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারকে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।