প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :   নাইজেরিয়ার পার্লামেন্টে রাখা একটি দণ্ড চুরি করা হয়। আসলে এটাকে ঠিক চুরি বলা যায় কিনা তা বিতর্কের বিষয়। কারণ, ছবিতে দেখতেই পাচ্ছে দিন-দুপুরে সবার চোখের সামনে দিয়ে ওটাকে নিয়ে দৌড়াচ্ছেন একজন। কাজেই একে ডাকাতি বলছেন অনেকে। যাইহোক, চুরি যাওয়া দণ্ডটি দেশটির রাজধানী আবুজার একটি ফ্লাইওভারের নিচে পাওয়া গেছে।

 

স্টেট পুলিশের মুখপাত্র আরেমু আদেনিরান বিবৃতিতে জানান, এক পথচারী ওটাকে দেখতে পান। পরে পুলিশকে জানান তিনি।

গত বুধবার একদল অস্ত্রধারী অধিবেশন চলাকালে একফাঁকে সিনেটে প্রবেশ করে। ওই দলের নেতৃত্বে ছিলেন আইনপ্রণেতা আভি ওমো-আগেগে। তাকে অবশ্য আগেই সিনেটে সাসপেন্ড করা হয়েছে। তিনি দলবল নিয়ে সিনেটে প্রবেশ করে বিধানসভার ওপরের দিকের একটি চেম্বার থেকে দণ্ডটি নিয়ে চলে যান। এসব তথ্য জানান সিনেটের এক মুখপাত্র।

এটা যেনতেন দণ্ড নয়। নাইজেরিয়ার সিনেটে এই দণ্ডের অনুপস্থিতিতে কোনো আইন পাস হতে পারে না। অনেকটা রাজদণ্ডের মতো দেখতে বস্তুটি সিনেটের সংখ্যাগরিষ্ঠের একমত হওয়ার প্রতীকী অর্থ প্রকাশ করে।

সিনেটের মুখপাত্র আলিয়ু আবদুল্লাহি বলেন, এমন ঘটনা বিশ্বাসঘাতকতার নামান্তর।

সিনেট নেতা বুকোলা সারাকি এ ঘটনাকে দেশের গণতন্ত্রের ওপর হামলা বলে মন্তব্য করেছেন।

এদিকে সিনেটর ওমো-আগেগের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করে সিএনএন। কিন্তু তাকে পাওয়া যায়নি। অনেকেই ধারণা করেছেন যে তাকে হয়তো গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তবে তিনি সোশাল মিডিয়ায় এক পোস্টে জানিয়েছেন যে তিনি কখনো গ্রেপ্তার হননি।

টুইটবার্তায় তিনি বলেন, আমি কখনোই গ্রেপ্তার হইনি। এ ঘটনায় পুলিশ আমার ভাষ্য চায়। আমি আমার কথা বলে চলে এসেছি।

পুলিশের মুখপাত্র আদেনিরান বলেন, এমন ডাকাতির ঘটনার তদন্ত চালানোর নির্দেশ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এ কাজ শেষ না হওয়া পর্যন্ত আমরা অপরাধীদের নাম প্রকাশ করতে পারি না।