প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :   শিল্প খাতকে বাড়তি সুবিধা দিতে এবার বাজেটে করহার সংশোধন করা হবে এবং নিম্ন আয়ের মানুষের ওপর করহার ১০ শতাংশ থেকে কমানোর চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে বলে উল্লেখ করেছেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান ও অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের সচিব মো. মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া। এ ছাড়া প্রতিবন্ধী ও নারীদের কর সুবিধা আরো বাড়ানো হচ্ছে। একই সঙ্গে করপোরেট করের ধাপ কমানো এবং জমি নিবন্ধন ফি কমিয়ে সহজ করার পরিকল্পনার কথা বলেন তিনি।

 

 

চট্টগ্রামে আগাম বাজেট পরামর্শ শুনতে এসে ব্যবসায়ী ও পেশাজীবীদের উদ্দেশে তিনি এ কথা বলেন। চট্টগ্রাম চেম্বার, চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন চেম্বার, চট্টগ্রাম উইমেন চেম্বার নেতাদের সঙ্গে পৃথক প্রাক-বাজেট মতবিনিময় করেন তিনি।

 

রাজস্ব আয় বাধাগ্রস্ত না করে এবারের বাজেট গণমুখী করা হবে উল্লেখ করে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান বলেন, আগামী বাজেটে ব্যবসায়ীদের কিছু সুবিধা দেওয়া হবে, তাহলে ব্যবসা বৃদ্ধি পাবে। কারণ ব্যবসা বাড়লেই রাজস্ব বাড়বে। বিনিয়োগ বাড়াতে কস্ট অব ডুয়িং বিজনেস বা খরচ কমানোর জন্য শুল্ক স্তর বিন্যাস বা কমানো হবে। ব্যাংক সুদ কমানোর ক্ষেত্রে নেওয়া উদ্যোগ কার্যকর হয়েছে, এতে ক্রমান্বয়ে সুদের হার কমে আসবে।

 

 

রাজস্ব বোর্ড চেয়ারম্যান বলেন, ‘সরকারের কোষাগারে একবার রাজস্ব ঢুকলে সেটি আর ফেরত পাওয়া যায় না—এমন ধারণা বা সংস্কৃতি থেকে আমরা বের হয়ে আস্থা বাড়াতে চাই। বছরের আয়ের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে বাড়তি কর আগামী জুলাই মাস থেকে ফিরিয়ে দেওয়ার কাজ শুরু হবে।’

 

 

পোল্ট্রি ও ফিশারিজের মতো প্রান্তিক পর্যায়ে শিল্প খাতকে বাড়তি সুবিধা দিতে এবার বাজেটে করহার সংশোধন করা হবে বলেও জানিয়ে তিনি বলেন, তৈরি পোশাক শিল্পের মতো অন্য খাতের উদ্যোক্তাদেরও বন্ড সুবিধা দেওয়া হবে। আর অগ্রিম আয়কর কমিয়ে আনা বা বাতিলের চিন্তাভাবনা নেই উল্লেখ করে মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া বলেন, ‘নির্দিষ্ট কিছু পণ্যে সেটি সামঞ্জস্যপূর্ণ করতে চাই।’