প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :   মেয়েদের নিয়ে যে ১০টি ভুল- নারী-পুরুষ তথা বিপরীত জেন্ডারের প্রতি আকর্ষণ প্রকৃতি প্রদত্ত। তবে নারী পুরুষের এই আকর্ষণের পাশাপাশি অনেক সময় বিপরীত চরিত্রও দেখা যায়।

 

 

 

 

আবার অনেক পুরুষ নিজের প্রেমিকা ও স্ত্রী সম্পর্কে এমন কিছু ধারণা মনে পোষণ করে যা একান্তই কাম্য নয়। এই প্রতিবেদনে দেখে নেওয়া যাক এমনই কিছু ভুল ধারণা সম্পর্কে-

 

 

 

 

১. মেয়েদের সম্পর্কে দুর্নাম আছে যে তাঁরা অনেক ইমোশনাল। পুরুষেরা ভুলে যান, যে সকলের আবেগ প্রকাশের ধরণ এক হয় না। মেয়েদের আবেগ প্রকাশ পুরুষের চাইতে ভিন্ন বলে তাঁকে নিয়ে ঠাট্টা করার কিছু নেই।

 

 

 

 

২. কোন নারী ভালো ভাবে কথা বললেই পুরুষেরা ধরে নেন যে মেয়েটি তাঁর সঙ্গে প্রেম করতে আগ্রহী। এর চাইতে ভুল ধারণা আর হতেই পারে না। মেয়েরা কিন্তু খুব অপছন্দের মানুষের সঙ্গেও দারুণ ভদ্র আচরণ করতে জানেন।

 

 

 

৩. নিজের কর্মক্ষেত্রে দারুণ সফল মেয়েদের ক্ষেত্রে বেশিরভাগ পুরুষই মনে করেন যে, মেয়েটি সৌন্দর্য দেখিয়ে বা শারীরিক সম্পর্কের বিনিময়ে পদোন্নতি পেয়েছেন। অথচ পুরুষেরা জানেনও না যে মেয়েদের অনেক বেশী পরিশ্রম করতে হয় পুরুষের সমান সফলতা অর্জন করতে।

 

 

 

 

৪. অনেক পুরুষ ভাবেন যে সব মেয়েরই প্রথম আগ্রহ শাড়ি, গহনা ও সাজগোজের প্রতি। এবং সব মেয়েরাই এইসব নিয়েই থাকতে ভালোবাসেন।

 

 

 

৫. মেয়েরা সাজলেই মনে করা হয় যে সেটা পুরুষদের দেখানোর জন্য। এটা আরও ভীষণ ভুল ধারণা। মেয়েরা সাধারণত ও অনেকসময়ই নিজের জন্যই সাজেন।

 

 

 

৬. সম্পর্কে কমিটমেন্ট চাইলেই পুরুষেরা মনে করেন যে মেয়েটি এক্ষুনি বিয়ে করতে চায়। সম্পর্কে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হওয়া আর বিয়ের মাঝে যে আকাশ পাতাল পার্থক্য এটা বহু পুরুষই বোঝেন না।

 

 

 

৭. আকর্ষণীয় পোশাক পরে কোন পুরুষের সামনে গেলেই তিনি ধরে নেন যে মেয়েটি যৌন সম্পর্কে আগ্রহী! এটাও ভুল ধারণা।

 

 

 

 

৮. প্রেমিক বা স্বামীকে সময় না দিয়ে নিজের বন্ধুদের সাথে সময় কাটালে পুরুষেরা ধরেই নেন যে মেয়েটি বাউন্ডুলে। এমনকি একজন নারীর পুরুষ বন্ধু থাকলে বেশিরভাগ পুরুষ তাঁকে চরিত্রহীন বলে ধরে নেন।

 

 

 

৯. ভালো চাকরি করলে নাকী মেয়েরা সংসারী হয় না।

 

 

 

 

১০. নিজের থেকে সফল নারীকেই পুরুষেরা “খারাপ” অভিহিত করেন। এটা পুরুষদের বাজে ধারণা।

 

 

 

চিন্তা বদলান তবেই দেশ বদলাবে