প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :   তেলাপোকা দেখলেই যেখানে অনেকে আৎকে উঠেন। সেখানে তেলাপোকা দিয়ে জুস তৈরি করছে চীন। শুধু তাই নয় সেই জুস আবার বাজারজাতও করা হচ্ছে।

 

জানা গেছে, চীনের সিচুয়াং প্রদেশের শিচ্যাঙ অঞ্চলের একটি ফার্ম তেলাপোকার জুস উৎপাদন করে বাজারজাত করছে। তারা বলছে এটি স্বাস্থ্যকর। যদিও খাবার হিসেবে ছাড়াও তেলাপোকা দিয়ে বানানো ওষুধও কিনে খায় চীনারা।

জানা গেছে, বছরে গড়ে ৬০০ কোটি তেলাপোকা জন্ম নিচ্ছে ওই ফার্মে। বিশেষ প্রযুক্তির সাহায্যে ওই ফার্মের আলোর পরিমাণ, আর্দ্রতা, খাবার সরবরাহের তথ্য বিশ্লেষণ করা হয়। তেলাপোকার ঘরগুলোতে মানুষ খুব প্রয়োজন ছাড়া ঢোকেন না। আর এই ফার্মে চাষ করা তেলাপোকা থেকেই বানানো হয় বিশেষ ওষুধ ‘ককরোচ জুস’।

প্রথমে বেছে বেছে স্বাস্থ্যকর তেলাপোকাগুলোকে আলাদা করা হয়। তারপর ভাল করে ধুয়ে সেগুলোকে একটি মেশিনে ঢোকানো হয়। এই মেশিনেই তেলাপোকাগুলোর পেস্ট বানানো হয়। তৈরি হয়ে যায় ‘ককরোচ জুস’।

এই জুস খেলে খাদ্যনালী এবং শ্বাসযন্ত্রের রোগ দূর হয় বলে দাবি চীনের ওই সংস্থার। জুসের বোতলের গায়ে উপকরণের জায়গায় শুধু লেখা পেরিপ্ল্যানাটা আমেরিকানা (তেলাপোকার বিজ্ঞানসম্মত নাম এটাই)। ওই সংস্থা ২০০ মিলিলিটারের একটি ‘ককরোচ জুস’ বোতল ৮ ডলারে বিক্রি করে। বাংলাদেশি টাকায় যার মূল্য দাঁড়ায় ৬৬৩ টাকা।