প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :        দুদকের ফাঁদে হাতেনাতে পাঁচ লাখ টাকা ঘুষসহ গ্রেপ্তার নৌপরিবহন অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী এস এম নাজমুল হকের জামিন আবেদন নামঞ্জুর হয়েছে। গতকাল রবিবার ঢাকা মহানগর দায়রা জজ মো. কামরুল হোসেন মোল্লা শুনানি শেষে জামিন আবেদনটি নাকচ করে দেন।

 

 

 

 

 

গত ১২ এপ্রিল নাজমুল হককে রাজধানীর সেগুনবাগিচার সেগুন হোটেল থেকে আটক করা হয়। পরে ঘুষ গ্রহণের মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে শুক্রবার তাঁকে আদালতে হাজির করা হয়।

 

 

 

ওই দিনই ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালত জামিন নামঞ্জুর করে নাজমুলকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। পরে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাঁকে রিমান্ডেও নেওয়া হয়।

 

 

 

 

 

 

ম্যাজিস্ট্রেট আদালত জামিন না দেওয়ায় নাজমুলের পক্ষে মহানগর দায়রা জজ আদালতে জামিনের আবেদন করা হয়।

 

 

 

 

মামলার বিবরণে জানা যায়, নতুন নৌযানের নামকরণের অনাপত্তি ও মেসার্স সৈয়দ শিপিং লাইনসের এমভি প্রিন্স অব সোহাগ নামীয় যাত্রীবাহী নৌযানের রিসিভ নকশা অনুমোদনের জন্য নাজমুল হকের কাছে গেলে তিনি ১৫ লাখ টাকা ঘুষ দাবি করেন।

 

 

 

 

 

সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বিষয়টি দুর্নীতি দমন কমিশনকে (দুদক) জানালে ঘুষ দেওয়ার ফাঁদ পেতে নাজমুলকে হাতেনাতে গ্রেপ্তার করা হয়।

 

 

 

 

 

ওই দিনই এ ঘটনায় দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয় ঢাকা-১-এর সহকারী পরিচালক আবদুল ওয়াদুদ বাদী হয়ে রাজধানীর রমনা মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন।