প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :           বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, আগামীকাল আপিল বিভাগের রায়ে আমাদের নেত্রী জামিন পাবেন। কিন্তু সরকারের যে নীল-নকশা, খালেদা জিয়া জামিন পেলেও তাকে সরকার মুক্ত হতে দিতে চায় না। সুতরাং তাকে মুক্তি দিবে না বলে আমাদের একটা শঙ্কা।

 

 

 

 

 

আজ সোমবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে দেশনেত্রীর মুক্তি সংগ্রাম পরিষদ আয়োজিত এক সভায় তিনি একথা বলেন।

 

 

 

 

খন্দকার মোশাররফ বলেন, যদি বিচারবিভাগ স্বাধীন হতো তাহলে বেগম জিয়ার শাস্তি হয় না। অতএব খালেদার জিয়ার সাজা রাজনৈতিক। আর এখন পর্যন্ত রাজনৈতিকভাবে তাকে কারাগারে রাখা হয়েছে। আর কাল যদি জামিন হয় তাহলেও রাজনৈতিকভাবেই তাকে কারাগারে রাখা হবে।

 

 

 

 

 

গাজীপুর সিটি নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করতে বাধ্য হয়েছে মন্তব্য করে খন্দকার মোশাররফ বলেন, এবার গাজীপুরে যে জনগণ জোয়ার উঠেছিল। সেই জনজোয়ার থামবে না। এই জনজোয়ার আরো তীব্রতর হবে।

 

 

 

 

 

সরকারের প্রতি হুশিয়ারা উচ্চারণ করেন তিনি। বলেন, কোটা সংস্কার আন্দোলন যেমন করে হঠাৎ করে হয়েছে। কারণ এটা তাদের যৌক্তিক দাবি। আজকেও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার জনগণের কাছে যৌক্তিক দাবি।

 

 

 

 

 

সভায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি ড. এমাজ উদ্দিন আহমেদ, বিএনপির স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরফত আলী সপু প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।