প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :          বাঁধনকে একটি এসএমএস- ছোটপর্দায় নিজের অবস্থানটা অনেক আগেই পাকাপোক্ত হয়েছে। এমনকি জনপ্রিয় অভিনেত্রীদের অন্যতম হয়ে উঠেছেন। তবে ছোটপর্দার অনেক অভিনেত্রীই এরই মধ্যে রুপালি পর্দায় পারফর্ম করছেন।

 

 

 

 

এবার সে তালিকায় ধারাবাহিক হচ্ছেন অভিনেত্রী আজমেরী হক বাঁধন। রাজনৈতিক ও সামাজিক গল্প নিয়ে নির্মিতব্য ‘দহন’ চলচ্চিত্রে দেখা যাবে বাঁধনকে। জাজ মাল্টিমিডিয়ার নতুন ছবি এটি।

 

 

 

 

জাজ মাল্টিমিডিয়ার আব্দুল আজিজকে ব্যক্তিগতভাবে চিনতেন না বাঁধন। তাই এই ছবির জন্য তাকে বলার প্রশ্নই ওঠে না বাঁধনের। ১১ মার্চ তারিখটা স্পষ্ট মনে আছে বাঁধনের।

 

 

 

 

আজিজ তাকে একটা এসএমএস করেন, ‘আমি জাজ মাল্টিমিডিয়ার আব্দুল আজিজ। আপনি আমাদের সঙ্গে একটু যোগাযোগ করেন। আমরা আপনার সঙ্গে কথা বলতে চাই।’

 

 

 

 

বাঁধনের প্রথমে বিশ্বাস হয়নি। কারণ অনেক সময়ই তারকাদের কাছে এমন ভুয়া এসএমএস আসে। দিয়াবাড়ীতে নাটকের শুটিং করছিলেন। মনের মধ্যে খুঁতখুঁত করে উঠল। ফ্রি হয়ে কলব্যাক করলেন।

 

 

 

 

ফোনের ওপাশ থেকে আজিজ বললেন, ‘আপনার সঙ্গে দেখা করতে চাই।’ বাঁধন তার একদিন পরই যাবেন কলকাতা। আজিজ শুনে বললেন, ‘কলকাতা থেকে আসেন। তারপর দেখা হবে।’ আসার পরও কোনো কারণে দেখা হচ্ছিল না।

 

 

 

৩১ মার্চ জাজ মাল্টিমিডিয়ার একটা অনুষ্ঠানে আজিজ ও বাঁধনের প্রথম দেখা। বাঁধন বলেন, “উনি আমাকে দেখে প্রথমে চেনেননি। সামনাসামনি আগে আমাদের কখনো দেখাও হয়নি।

 

 

 

 

সেদিনই ‘দহন’ ছবির গল্পটা সংক্ষেপে শোনালেন। তারপর পরিচালক রাফি এলেন, কথা বললেন। তৃতীয় বসায় সিদ্ধান্ত নিলাম, এই ছবি আমি করছি।”

 

 

 

 

 

এদিকে বাঁধন বললেন, ‘অনেকের ধারণা সিনেমায় আসার জন্য আমি জিম করেছি বা লুকে পরিবর্তন এনেছি। এটা সত্য না। নিজে ফিট থাকার জন্য এবং ঘুরে দাঁড়ানোর জন্যই এসব করেছি।

 

 

 

 

 

৯ মাসে ৮০ কেজি থেকে আমি ৬০ কেজি হয়েছি। আমার ধারণা, অন্য মেয়েরা আমাকে দেখে অনুপ্রাণিত হবেন। নিজেকে ফিট করেছি বলেই সিনেমা আমার কাছে এসেছে। এটা আমার ক্রেডিট।’