প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :  বুনো হাতির সঙ্গে সেলফি তোলার ভয়ংকর এক অভ্যাস ছড়িয়ে পড়েছে ভারতের পূর্বাঞ্চলীয় ওড়িশা রাজ্যে। বন্য হাতিদের সঙ্গে সেলফি তোলার প্রবণতা এতই বৃদ্ধি পেয়েছে যে প্রায় সময়ই হাতির আক্রমণের শিকার হয়ে প্রাণহানি ঘটছে সেলফি শিকারিদের। গত কয়েক মাসে সেখানে বুনো হাতির আক্রমণে ৬০ জনের বেশি লোকের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছে কয়েকগুণ বেশি মানুষ। তবু টনক নড়ছে না সেলফি-আসক্তদের।

নিবার স্থানীয় প্রতিনিধির মাধ্যমে এ বিষয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে বিবিসি। রাজ্যের বন কর্মকর্তাদের আশঙ্কা, এই ভয়ানক প্রবণতা যেভাবে ছড়িয়ে পড়ছে তাতে ভবিষ্যতে পরিস্থিতি আরো খারাপের দিকে মোড় নিতে পারে। বিবিসিসহ আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো জানায়, ওড়িষ্যায় বর্তমান প্রজন্মের তরুণদের মধ্যে বন থেকে খাদ্যের খোঁজে লোকালয়ে নেমে আসা ক্ষুধার্ত হাতির সঙ্গে সেলফি তোলার বিপজ্জনক প্রবণতা ক্রমশ বাড়ছে। তবে বয়স্কদের কারো কারো মধ্যেও এমন প্রবণতা দেখা যাচ্ছে।

ডিসেম্বরে জয়ক্রুশনা নায়েক বাড়ি থেকে বাজারে হাতি দেখতে গেলে দেখেন সেখানে অনেকেই হাতির সাথে সেলফি তুলছে এবং সেটিকে উত্ত্যক্ত করছে। তাদের সাথে তিনি যোগ দিলে হাতির আক্রমণের শিকার হন নায়েক। পালাতে না পারে হাতির পায়ের নিচে পৃষ্ট হয়ে মারা যান। ঘটনাটি ঘটেছে বহু লোকের চোখের সামনে। কিন্তু কেউই তাকে রক্ষা করতে এগিয়ে যায়নি। বা যেতে সাহস পায়নি। বিবিসিকে এভাবেই হতাশ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে নিহতের ছেলে দীপক নায়েক।