নীলফামারীতে সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নুর এমপি বলেছেন, এখন বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের হ্যারিকেন জ্বালিয়ে পড়া শুনা করতে হয় না। পাড়ায়, পাড়ায়, বাড়ীতে, বাড়ীতে বিদ্যুৎ ঁেপৗছে গেছে। বিদ্যুতের আলোয় আলোকিত হয়েছে বাংলাদেশ। এটি শেখ হাসিনার উন্নয়ন।তিনি আরও বলেন, কৃষিখাতে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। কৃষক হাতের কাছে সার বীজ আধুনিক যন্ত্রপাতি পাচ্ছে। যে জমিতে আগে ৭ মন ধান হতো সে জমিতে এখন ১৫ থেকে ২০মন ধান ফলাচ্ছে। কৃষক কৃষি পণ্যের দাম পাচ্ছে, শ্রমিকের হাজিরা বেড়েছে। তারা এখন সুখে শান্তিতে আছে।

 

 

বিএনপির আমলে গাইবান্দায় সারের আন্দোলন করতে গিয়ে কৃষককে পুলিশের হাতে জীবন দিতে হয়েছে। আর এখন সার বীজ সব উপকরন কৃষকের পিছনে গুড়ছে।
সোমবার (১৪ মে) রাত সাড়ে ৮টার দিকে নীলফামারী সদরের রামনগর ইউনিয়নের চড়চড়াবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ওই ইউনিয়নের বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন মন্ত্রী।ন্ত্রী বলেন, বিএনপির জামায়াতের আমলে পেট্রোল বোমা মেরে মানুষ ঘুন করেছে, চলন্ত বাসে আগুন দিয়ে মানুষ হত্যা করেছে, গাছ কেটে রাস্তা অবরোধ করে সরকারী সম্পদকে লুটপাট করে দেশের উন্নয়নকে বাধা গ্রস্ত করেছে। তারা বলেন, আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় এলে ইসলাম ধ্বংশ হবে। অথচ শেখ হাসিনার সরকারের সময় মাদ্রাসা, মসজিদ, মন্দির গীর্জায় যে ধরনের সাহায্য সহযোগিতা করা হচ্ছে তাদের আমলে সেটি হয়নি। এখন মসজিদের সংখ্যা বেড়েছে, মাদ্রসার সংখ্যা বেড়েছে। আমুল পরিবর্তন হয়েছে ইসলাম ধর্মের। শান্তিতে মানুষ নিজ নিজ ধর্ম পালন করছে। এটি একটি অসম্প্রদায়িক বাংলাদেশ।

 

 

রামনগর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মমতাজ আলীর সভাপতিত্বে এ সময় বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ নীলফামারী জেলা শাখার সভাপতি সভাপতি দেওয়ান কামাল আহমেদ, সাধারন সম্পাদক এ্যাড, মমতাজুল হক, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এ্যাড, আলিমুদ্দিন বসুনিয়া, সাধারন সম্পাদক আবুজার রহমান ও স্বাগতিক বক্তব্য রাখেন, রামনগর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মিজানুর রহমান বাবু প্রমুখ।