প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :           আমরা সবাই ছবি তুলি যাতে আমরা আমাদের বন্ধুদের সঙ্গে কাটানো মুহূর্তগুলো ধরে রাখতে পারি । কিন্তু অনেকবার কিছু ছবি এমনো হয় যেগুলো দেখলে আমরা নিজেরাই আশ্চর্য হয়ে যাই যে এটা কি করে হলো।

 

 

 

 

 

 

আমাদের ছবিগুলিতে অনেকবার আমরা এমন কিছু দেখতে পাই যা দেখে আমরা নিজেরাই বিশ্বাস করি না।এমনই কিছু ঘটেছে ফিলিপিনসের একটি স্কুলের এই দুই মেয়েদের সাথে । দেখুন তারা ছবিতে কি দেখেছিল যার জন্য ভয় পেয়েছিল।

 

 

 

 

 

এই সেই স্কুল যার বাথরুমে সেই ছবি তোলা হয়েছিল

এই কিশোরীরা শুধু ছবি তুলছিলেন, #পরিবর্তে পিছনে ধরা পড়ল কিছু আতঙ্কজনক জিনিস…
এটি ফিলিপিনসে অবস্থিত রিজাল হাইস্কুল। মেয়ে দুটি স্কুলের বাথরুমে ছবি তুলছিল । কিন্তু যখন তারা ছবিটি দেখল তার মধ্যে কিছু ভয়ানক জিনিস ছিল।

 

 

 

 

 

এই সেই ছবি যেটা দেখার পর সবাই অবাক হয়ে গিয়েছিল

এই কিশোরীরা শুধু ছবি তুলছিলেন, #পরিবর্তে পিছনে ধরা পড়ল কিছু আতঙ্কজনক জিনিস…

এই ছবিটি দুজন মেয়ে স্কুলের বাথরুম তুলেছিল । কিন্তু যখন তারা ছবিটি দেখে তখন তাদের ভয়ে ঘাম বেড়িয়ে যায় ।

 

 

 

 

 

আপনি কি পিছনে কিছু দেখতে পাচ্ছেন ?

এই কিশোরীরা শুধু ছবি তুলছিলেন, #পরিবর্তে পিছনে ধরা পড়ল কিছু আতঙ্কজনক জিনিস…

আপনি যদি লক্ষ্য করেন তাহলে পিছনে কালো রঙের কিছু একটা দেখতে পাবেন ।দেখুন আপনার এটাকে কি মনে হচ্ছে?আপনি যদি দেখতে সক্ষম হন তবে আপনি অদ্ভুত কিছু দেখতে পাবেন। দেখুন তো ওটা কি মনে হচ্ছে ?

 

 

 

 

 

 

এটা কি কোন আত্মা ?

এই কিশোরীরা শুধু ছবি তুলছিলেন, #পরিবর্তে পিছনে ধরা পড়ল কিছু আতঙ্কজনক জিনিস…

এই ছবিতে মেয়েদের পিছনে একটি মেয়েকে বসে থাকতে দেখা যাচ্ছে, যেটা দেখে মেয়েগুলো ভিষন ভয় পেয়েছিল । কারণ, তাদের মতে ছবিটি যখন নেওয়া হয়েছিল তখন বাথরুমে তারা দুজন ছাড়া আর কেউ ছিলনা।

 

 

 

 

 

 

এটা স্কুলের প্রথম বিষয় নয়

এই কিশোরীরা শুধু ছবি তুলছিলেন, #পরিবর্তে পিছনে ধরা পড়ল কিছু আতঙ্কজনক জিনিস…

আপনাদের বলে রাখি যে, এটি স্কুলে প্রথমবার হয়নি যখন কেউ স্কুলে আত্মা দেখেছে । এই স্কুলের সুডেন্টদের সাথে ১৯৮০ সাল থেকেই এমন ঘটনা ঘটেছে । বলা হয় যে একটি মেয়ে স্কুলে মারা গিয়েছিল । তখন থেকে স্কুলে কিছু অদ্ভুত দুর্ঘটনা ঘটে ।