প্রথমবার্তা ডেস্ক রিপোর্ট :            রাজধানীতে ইভটিজিং আর যৌন নিপীড়ন কমার যেন কোনও লক্ষণই দেখা যাচ্ছে না। তেমনি একটি ঘটনা ঘটে গেলো গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টায় হাতিরঝিলে। একটি সরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত একজন নারী গতকাল ভরদুপুরে শিকার হলেন ইভটিজিংয়ের।

 

 

 

 

 

হাতিরঝিলে বিলাসবহুল গাড়িতে বসে কি হচ্ছে? দেখুন হাতিরঝিলে গাড়ির মধ্যে কিছু না দেখা ছবি

 

 

 

 

 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ইভটিজিংয়ের শিকার ওই নারী নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে ঘটনার পুরো বিবরণ দেন। তার স্ট্যাটাসে তিনি বলেন, আমি আজকে হাতিরঝিল দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিলাম, তখন দুপুর দেড়টা বাজে। কিছু দূর হাঁটার পরে একটা পাজেরো জিপ। গাড়িটি হয়তো বা কোনো মন্ত্রী বা কোনো বড় পোস্টে চাকরি করেন এমন কারও গাড়ি হবে।

 

 

 

 

 

হাতিরঝিলে বিলাসবহুল গাড়িতে বসে কি হচ্ছে? দেখুন হাতিরঝিলে গাড়ির মধ্যে কিছু না দেখা ছবি

 

 

 

 

 

গাড়ির ভেতরে দুইজন লোক ছিল। আমি যখন গাড়িটা পার করে সামনে যাই ঠিক তখনই ঐ গাড়ির চালক ও তার সাথের ব্যক্তি আমার ফিগার নিয়ে বাজে মন্তব্য করে। আমি তখন দাঁড়িয়ে পেছনে ফিরে তাকাই। ঐ মূহুর্তে দেখলাম গাড়িটি আমাকে ফলো করে আস্তে আস্তে সামনে এগুচ্ছে।

 

 

 

 

 

 

হাতিরঝিলে বিলাসবহুল গাড়িতে বসে কি হচ্ছে? দেখুন হাতিরঝিলে গাড়ির মধ্যে কিছু না দেখা ছবি

 

 

 

 

 

 

আমি হতবাক হয়ে তাকিয়ে থাকি। লোক দুইটা আমাকে দেখে হাসতে থাকে আর সাথে আরও কিছু নোংরা কথা বলতে বলতে আমার থেকে একটু দূরে গিয়ে গাড়িটি রাখে। আমার আশেপাশে কেউ নাই। আমার বুঝতে বাকি নাই।

 

 

 

 

 

 

হাতিরঝিলে বিলাসবহুল গাড়িতে বসে কি হচ্ছে? দেখুন হাতিরঝিলে গাড়ির মধ্যে কিছু না দেখা ছবি

 

 

 

 

 

 

আমি সাথে সাথে রাস্তার বিপরীত পারে সোজা হাটা দিলাম। তখনও দেখছি আমাকে ফলো করছে। আমি আর কিছু না পেয়ে অনেক জোরে চিৎকার দিলাম আর হাত দেখিয়ে বললাম থাপড়াবো। তখন আমার পেছনে একটা কাপল ছিল আর একটা লোক ছিল।

 

 

 

 

 

 

হাতিরঝিলে বিলাসবহুল গাড়িতে বসে কি হচ্ছে? দেখুন হাতিরঝিলে গাড়ির মধ্যে কিছু না দেখা ছবি

 

 

 

 

 

তারা আমার ব্যাপারটা বুঝতে পেরে এগিয়ে আসে। আর তখনই গাড়িটি তার সর্বোচ্চ স্পিডে টান দেয়।আজকে ঐ কাপল আর লোকটা না থাকলে যে কি হত তা আল্লাহই জানেন।