প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:    বাসি মাছকে টাটকা বলে চালানোর কারচুপি সব দেশে সবসময়ই চলে আসছে। বিভিন্ন কায়দায় মাছ বিক্রেতারা বাসি মাছকে ‘টাটকা’ করে তোলার চেষ্টায় রত হন।ক্রেতারা ঠকেন। আবার অনেক সময়ে ক্রেতারা জিতে যান। ধরে ফেলেন কারচুপি। সম্প্রতি বাসি মাছকে টাটকা বলে চালানোর এমন এক কৌশলের কথা জানা গেছে, যা সত্যিই নজিরবিহীন।জানা যাচ্ছে, কুয়েতের এক মৎস্য ব্যবসায়ী তার স্টকের বাসি মাছকে টাটকা হিসেবে চালাতে গিয়ে বিচিত্র কৌশল অবলম্বন করে বিপাকে পড়েছেন। বাসি মাছগুলিকে ‘টাটকা’ করতে সেই বিক্রেতা মাছগুলিতে নকল চোখ লাগান। তার পরে সেগুলিকে বাজারে বিক্রির জন্য নিয়ে আসেন।

 

 

 

 

বাজারে প্রাপ্য ‘গুগলি আই’ স্টিকার মাছের চোখে লাগিয়ে মাছগুলির ভোল বদলেছিলেন সেই মাছ বিক্রেতা। ক্রেতাদের মধ্যে থেকেই জনৈক ব্যক্তির মাছের চোখ দেখে সন্দেহ হয়। পুলিশে খবর দেন ক্রেতারা। পুলিশ এসে বিক্রেতাকে আটক করে এবং তার দোকান বন্ধ করে দেয়।

 

 

 

 

এরপরে সেই মাছের চোখের ছবি টুইট করেন ক্রেতাদের মধ্যেই কেউ কেউ। মাছ বিক্রেতার সৃজনীশক্তির নিয়ে শুরু হয় মন্তব্য। মাছ পচা সন্দেহ নেই। কিন্তু এতে যে বেশ খানিকটা মজার খোরাক পেয়েছেন নেটিজেনরা, সেটাও অস্বীকার করা যাবে না।