প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:    রাগ কথায় কথায় রাগ । এতরাগ করা সংসারের জন্য ভালো নয় । বউ রেগেছে এসময় আপনার রাগ করা ঠিক হবে না। কিংবা আপনি রেগেছেন সে সময় বউয়ের উচিৎ হবে না আপনার তালে তালে রাগ করা ।এই সময় এমন কাজ করতে হবে যেন সেই কাজে একজন আরেকজনের রাগ কমাতে পারে।

 

 

 

দোষ তো কারর না কারর থাকবেই । স্বাভাবিকভাবে নারীদের রাগ একটু বেশিই থাকে । আর এই রাগ কমাতে আপনি কি করবেন তা জানিয়ে দিচ্ছে আপনার ডক্টর। আপনি চাইলে এই পরামর্শগুলো একবার দেখে নিতে পারেন।

 

 

 

 

আপনার বউ যদি কোনো বিষয়ে রাগ করে, তাহলে আগে থেকেই মনে মনে চিন্তা করে নিন, কী কী প্রশ্ন সে করতে পারে এবং কীভাবে সেগুলোর উত্তর দেবেন। এর মানে এই নয় যে আপনাকে মিথ্যা বলতে হবে।

 

 

 

 

 

একটু সাজিয়ে-গুছিয়ে তো বলা যায়ই, কী বলেন? আর যদি ভুলটা আপনার হয়ে থাকে, তাহলে আগেভাগেই নিজের দোষ স্বীকার করে নিন। আর আন্তরিকভাবে সেই দোষের জন্য দুঃখ প্রকাশ করুন। দেখবেন, বউ রাগ হবে ঠিকই, কিন্তু অনেক দ্রুত সেই রাগ চলেও যাবে।

 

 

 

 

বউ রাগ করেছে বলে সোশ্যাল মিডিয়ার ওয়ালে ভুলেও দুঃখ প্রকাশ করবেন না। অথবা তার অফিসে ফুলের তোড়া বা দুঃখ প্রকাশ করে কার্ড পাঠাবেন না। এতে সে আরো অস্বস্তিকর পরিস্থিতিতে পড়তে পারে। যা রাগ তো কমাবেই না, উল্টো কয়েকগুণ বাড়িয়ে দেবে।

 

 

 

 

ভুল যদি আপনার নাও হয়ে থাকে, তবুও মাঝেমধ্যে নিজের কাঁধেই সব দোষ নিয়ে নিন! কী আর করবেন বলুন? অযথা ঝগড়া করার চেয়ে সবকিছু মেনে নিয়ে চুপ থাকাটাই শ্রেয়। কারণ, দুই পক্ষই সমান রাগী হলে সেই সম্পর্ক টেকানো বড় দায়।

 

 

 

 

 

.বউ যদি অতিরিক্ত রাগী হয়, তাহলে নিজে ধৈর্য ধরতে শিখুন। আপনার মাথা ঠান্ডা না থাকলে বউকে সামলাবেন কী করে বলুন? পৃথিবীতে সব মানুষ সমান হয় না। কারো রাগ বেশি থাকে, আবার কারোটা কম। আপনি না হয় কমের খাতায়ই নিজের নাম লিখিয়ে নিন।

 

 

 

 

 

 

কিছু সময় বউকে একা থাকতে দিন। রাগের সময় আপনি তার সামনে থাকলে কখনোই তা আর কমবে না। তাই এ সময়টা তার কাছ থেকে দূরে থাকুন। কিছুক্ষণ পর রাগ কমে গেলে তাকে সবকিছু বুঝিয়ে বলার চেষ্টা করুন।