প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:   তফসিল ঘোষণার পর সরকারি খরচে বিজ্ঞাপন প্রচারের মাধ্যমে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ ও সরকার নির্বাচনী আইন লঙ্ঘন করছে বলে জানিয়েছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।তিনি আরো বলেন, এ বিজ্ঞাপন তো দেশের মানুষের করের টাকায় প্রচার করা হচ্ছে। আর বিজ্ঞাপন প্রচার করে আওয়ামী লীগ ভোটের সুবিধা নেবেন, এটি নির্বাচন আচরণবিধির সুস্পষ্ট লঙ্ঘন।আজ বুধবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, টিভি খুললেই অনেক চ্যানেলে ‘থ্যাংক ইউ পিএম’-এর বিজ্ঞাপন চলতে দেখছি।

 

 

 

 

 

কিছু বিজ্ঞাপনের পর বোঝাও যায় না-বিজ্ঞাপনদাতা কে? কিছু বিজ্ঞাপনের পর বোঝা যায় যে, বিজ্ঞাপনদাতা মন্ত্রণালয়। রিজভী বলেন, এ বিজ্ঞাপন প্রচারের মাধ্যমে সরকারি টাকায় আওয়ামী লীগের পক্ষে প্রচার চালানো হচ্ছে। এটির মাধ্যমে নির্বাচনী প্রচারণায় সমান সুযোগের বিধান লঙ্ঘন করা হচ্ছে। নির্বাচন কমিশন এসব দেখেও না দেখার ভান করছে।এজন্য তিনি অবিলম্বে সরকারি টাকায় আওয়ামী লীগের পক্ষে বিজ্ঞাপন প্রচার বন্ধ করার জোর দাবি জানান। এ ছাড়া গণমাধ্যমে সব দলের সমান সুযোগের ব্যবস্থা নিতে আহ্বান জানান।

 

 

 

 

 

বিএনপির এই নেতা আরও বলেন, একাদশ সংসদ নির্বাচনে গণমাধ্যমকে নিয়ন্ত্রণ করতে চায় নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এ জন্য ভোটকেন্দ্র থেকে সংবাদমাধ্যমগুলোকে সরাসরি সম্প্রচার বন্ধের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।