প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:     আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কাস্তে মার্কার প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নের জন্য তৃণমূল থেকে সুপারিশের মাধ্যমে নাম আসতে শুরু করেছে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র কেন্দ্রীয় মনোনয়ন বোর্ডের কাছে। সেখানে কেন্দ্রীয় নেতাদের অনেকের নাম আসলেও আসেনি সিপিবি সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম ও সাধরণ সম্পাদক মো. শাহ আলমের নাম।

 

 

 

 

সিপিবি সূত্র জানায়, ইতিমধ্যে প্রার্থী হিসেবে যে সকল কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের নাম এসেছে, তারা হলেন- সিপিবি’র সাবেক সভাপতি মনজুরুল আহসান খান (জামালপুর-২), সহকারী সাধারণ সম্পাদক কাজী সাজ্জাদ জহির চন্দন (নরসিংদী-৪), প্রেসিডিয়াম সদস্য মিহির ঘোষ (গাইবান্ধা-২), আবদুল্লাহ ক্বাফী রতন (কুমিল্লা-৫) রফিকুজ্জামান লায়েক (ফরিদপুর-৩), কেন্দ্রীয় নেতা দিবালোক সিংহ (নেত্রকোণা-১), ডা. ফজলুর রহমান (নওগাঁ-৪), অ্যাডভোকেট এমদাদুল হক মিল্লাত (ময়মনসিংহ-৪), জলি তালুকদার (নেত্রকোণা-৪), আহসান হাবীব লাবলু (ঢাকা-১৩), আজহারুল ইসলাম আরজু (মানিকগঞ্জ-৩), ডা. সাজেদুল হক রুবেল (ঢাকা-১৫), অ্যাডভোকেট  মন্টু ঘোষ (নায়ারণগঞ্জ-৫), মৃণাল চৌধুরী (চট্টগ্রাম-১), আমিনুল ফরিদ (বগুড়া-৭), অ্যাডভোকেট সোহেল আহমেদ (ভোলা-১) ও লীনা চক্রবর্তী (ঢাকা-১৯)।

 

 

 

 

সিপিবি’র মনোনয়ন বোর্ড আগামী ১৮ নভেম্বর পর্যন্ত আবেদন গ্রহণ করবে। উল্লেখিত সময়ের মধ্যে তৃণমূল থেকে যথা নিয়মে অর্থাৎ শাখা পর্যায় থেকে শুরু করে ইউনিয়ন, উপজেলা ও জেলা পর্যায়ের কমিটির মতামতরে ভিত্তিতে আবেদন পাঠাতে সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে। সংসদ নির্বাচনের প্রার্থী বাছাই চূড়ান্ত করতে পার্টির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিমকে প্রধান করে ১১ সদস্যের মনোনয়ন বোর্ড গঠন করেছে সিপিবি।