প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:    ভুয়া করদাতা সাজিয়ে রাষ্ট্রীয় অর্থ আত্মসাতের মামলায় অভিযোগ গঠনের আদেশ বাতিল চেয়ে খুলনা আয়কর বিভাগের আয়কর উপদেষ্টা মো. শহীদুল আলমের করা আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে মামলার বিচার কাজের ওপর দেওয়া স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করেছেন এবং ছয়মাসের মধ্যে মামলার বিচার কাজ সম্পন্ন করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

 

 

 

 

বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কে এম হাফিজুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চ গতকাল বুধবার এ রায় দেন। ফলে নিম্ন আদালতে মামলাটিতে বিচার কাজ চলতে আপাতত আইনগত কোনো বাধা থাকলো না বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা। আদালতে দুদকের পক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট খুরশীদ আলম খান। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিনউদ্দিন মানিক।

 

 

 

 

 

আসামিপক্ষে ছিলেন- ভুয়া ওকালতনামার মাধ্যমে ভুয়া করদাতা সাজিয়ে সাত লাখ ১১ হাজার ৫৭৯ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ২০০১ সালের ৩ আগস্ট তিনজনকে আসামি করে খুলনা সোনাডাঙ্গা থানায় মামলা করে দুদক। এ মামলায় ২০১২ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর খুলনার বিশেষ জজ আদালতে আসামিদের বিরম্নদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়।

 

 

 

 

এ আদেশের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে রিভিশন আবেদন করেন মো. শহীদুল ইলাম। আদালত ২০১৫ সালের ১১ আগস্ট রুল জারি করেন ও বিচার কাজের ওপর ছয় মাসের স্থগিতাদেশ দেন। এ রুলের ওপর শুনানি শেষে গতকাল তা খারিজ করা হয়েছে।