প্রথমবার্তা, নিজস্ব প্রতিবেদন :  নির্বাচন কমিশনার কবিতা খানম বলেছেন, আমরা এমন নির্বাচন উপহার দিতে চাই না, যার জন্য সব সময় জনগণকে আমাদের জবাবদিহি করতে হবে।নির্বাচন ভবনে একাদশ সংসদ নির্বাচনের সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের ব্রিফিং করার সময় শুক্রবার (১৬ নভেম্বর) তিনি একথা বলেন।কবিতা খানম বলেন, ‘আমরা চাই না এমন কোনো নির্বাচন এই জনগণকে উপহার দিতে, জনগণকে সবসময় আমাদের জবাবদিহি করতে হবে। কিন্তু হানড্রেড পারসেন্ট (শতভাগ) নির্বাচন সুষ্ঠু হবে-এটা পৃথিবীর কোনো দেশেই হয়নি। আমাদের দেশেও হবে না। সুতরাং আমরা বলতে চাই, একটা গ্রহণযোগ্য নির্বাচন (করতে হবে), যেটা প্রশ্নের ঊর্ধ্বে থাকবে।’

 

 

 

 

তিনি বলেন, দেশে নির্বাচনী হাওয়া বইছে। এই হাওয়া যেন কোনোভাবেই বৈরী না হয়, এই নির্দেশনা কমিশন থেকে থাকবে। আপনাদের সেটা প্রতিপালন করতে হবে।কমিশনার বলেন, নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে তুলে আনা অনেক কঠিন কাজ। সবার সঙ্গে সদাচারণ করে, সৎ ব্যবহার করে নির্বাচন সুষ্ঠু করতে হবে। নির্বাচন সুষ্ঠু করার দায়িত্ব শুধু নির্বাচন কমিশনের নয়, এটা সবার দায়িত্ব।

 

 

 

 

 

 

নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচন হবে, এটা ফিক্সড। এই নির্বাচন হবে সব দলের অংশগ্রহণে। তাই নির্বাচন হবে প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক।দেশের অনেক জায়গায় এখনও ব্যানার, পোস্টার নামানো হয়নি উল্লেখ করে হেলালুদ্দীন আহমদ নির্দেশ দিয়ে বলেন, ‘১৮ নভেম্বরের মধ্যে যাতে এগুলো নামিয়ে ফেলা হয় এবং মনোনয়নপ্রাপ্তরা যাতে ব্যানার-পোস্টার লাগানোর সুযোগ পান, সে ব্যবস্থা করতে হবে।এ সময় নির্বাচন কমিশনের (ইসি) অন্য কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন

(আবিদ হোসেন)

বাংলাদেশ সময়: ০২:৪০ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৬, ২০১৮