প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:     যুক্তফ্রন্টের চেয়ারম্যান, বিকল্পধারার প্রেসিডেন্ট ও সাবেক রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক এ.কিউ.এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেছেন, কোনো পক্ষ নির্বাচন বানচালের ষড়যন্ত্র করলে দেশবাসী তাদের ক্ষমা করবে না। যারা শহীদদের রক্তের সাথে বেঈমানি করেছে তাদের সাথে ঐক্য করি নাই।ড. কামাল হোসেন স্বাধীনতা বিরোধীদের সাথে ঐক্য করেছেন, তাদের (স্বাধীনতা বিরোধী) স্বীকৃতি দিয়েছেন। তখন আমাদের স্মরণ হয় লাখ লাখ শহীদদের, নির্যাতিত মা-বোনদের। তারাই আমাদের ঐক্যের প্রতীক।রাজধানীর বাড্ডায় বিকল্পধারার নির্বাচনী কার্যালয়ে শনিবার বিকালে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

 

 

 

 

 

অনুষ্ঠানে বিএনপি নেতা, ড্যাবের সাবেক সভাপতি ও সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ডা. রফিকুল ইসলাম চৌধুরী বিকল্পধারায় যোগদান করেন। তিনি সুনামগঞ্জ-১, (ধর্মপাশা, জামালগঞ্জ, তাহিরপুর, মধ্যনগর) আসন থেকে বিকল্পধারার প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করবেন।বি. চৌধুরী বলেন, নির্বাচন নিয়ে নানা ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে। কিন্তু কোনো পক্ষ নির্বাচন বানচালের ষড়যন্ত্র করলে দেশবাসী তাদের ক্ষমা করবে না। এসময় কমিশনের প্রতি নির্বাচন যাতে সুষ্ঠু হয় সেজন্য লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নিশ্চিত করার আহ্বান জানান।তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশনকে মনে রাখতে হবে তারা এখন একশত ভাগ স্বাধীন, সরকারের কাছে দায়ী নন।বিকল্পধারার প্রেসিডেন্ট আরও বলেন, আমরা সন্ত্রাস ও দুর্নীতিকে ঘৃণা করি। দুর্নীতি বাংলাদেশকে গ্রাস করেছে। দুর্নীতি কমাতে পারলে উন্নয়ন অনেক বেশি হতো।

 

 

 

 

 

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন- বিকল্পধারার মহাসচিব সচিব মেজর (অব.) আবদুল মান্নান, প্রেসিডিয়াম সদস্য শমসের মবিন চৌধুরী বীরবিক্রম, যুক্তফ্রন্টের প্রধান সমন্বয়কারী গোলাম সারোয়ার মিলন, ইঞ্জিনিয়ার ইউসুফ, সদ্য বিকল্পধারায় যোগদানকারী বিএনপি নেতা ডা. রফিকুল ইসলাম চৌধুরী, বিএলডিপির চেয়ারম্যান নাজিম উদ্দিন আল আজাদ, বাংলাদেশ ন্যাপের চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি, এনডিপির চেয়ারম্যান খোন্দকার গোলাম মোর্ত্তুজা, জাতীয় জনতা পার্টির সভাপতি শেখ মো. আসাদুজ্জামান, জন দলের চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান জয় চৌধুরী, বাংলাদেশ মাইনরিটি ইউনাইটেড ফ্রন্টের সভাপতি দীলিপ কুমার দাস প্রমুখ।