মৎস্য শ্রমিকের অধিকার এবং সুরক্ষা নিশ্চিতকরণে জাতীয়ভিত্তিক ধারাবাহিক এডভোকেসি কার্যক্রম পরিচালনা এবং কর্মসূচি প্রণয়নের জন্য কৌশল নির্ধারণের লক্ষ্যে বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব লেবার স্টাডিজ-বিল্স এর উদ্যোগে এবং ফ্রেডরিক-এবার্ট- স্টিফটুং (এফইএস) এর সহযোগিতায় “মৎস্য শ্রমিকদের অধিকার ও সুরক্ষা : বিদ্যমান অবস্থা এবং উন্নয়নে করণীয়” শীর্ষক কর্মশালা আজ ২৭ নভেম্বর, ২০১৮ দি ডেইলি স্টার সেন্টারের আজিমুর রহমান কনফারেন্স হলে অনুষ্ঠিত হয়।

 

 

 

 

 

বিল্স ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ মজিবুর রহমান ভূঞার সভাপতিত্বে এবং যুগ্ম মহাসচিব মোঃ জাফরুল হাসানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত কর্মশালায় মুল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন সংঘের সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী আশিকুল আলম। এছাড়া অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন এফইএস বাংলাদেশ আবাসিক প্রতিনিধি টিনা বে−াম, বিল্স উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য মেসবাহউদ্দীন আহমেদ, ভাইস চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ কর্ম বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক রেজাউল করিম, বিল্স নির্বাহী পরিষদ সদস্য উম্মে হাসান ঝলমল, মোঃ আব্দুল ওয়াহেদ ও পুলক রঞ্জন ধর, বাংলাদেশ শ্রমিক ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক এ এ এম ফয়েজ হোসেন, চট্টগ্রাম, খুলনা ও বরিশাল অঞ্চলের মৎস্য শ্রমিক নেতৃবৃন্দ এবং যুব ট্রেড ইউনিয়ন নেতৃবৃন্দ।

 

 

 

 

 

 

মৎস্য শ্রমিকদের আর্থ-সামাজিক দুরবস্থার কথা তুলে ধরে কর্মশালায় বক্তারা, মৎস্য শ্রমিকদের কাছ থেকে বেআইনিভাবে চাঁদা আদায় বন্ধ, তাদের জীবন রক্ষার্থে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ, দাদন ব্যবস্থা নিয়ন্ত্রণ করা, সুদ ছাড়া সরকারিভাবে সাহায্য সহযোগিতার ব্যবস্থা করা, নিখোঁজ শ্রমিকদের খুঁজে বের করা এবং সাগরে মাছ ধরতে গিয়ে যেসকল শ্রমিক পাশ্ববর্তী দেশসমূহে আটক আছেন তাদেরকে দেশে ফিরিয়ে আনার ক্ষেত্রে সরকারিভাবে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করা, নিখোঁজ শ্রমিকদের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ প্রদান, কমিউনিটি রেডিও চালুর ক্ষেত্রে উদ্যোগ নেয়া, মৎস্য শ্রমিকদেরকে প্রশিক্ষণের মধ্যে দিয়ে তাদের অধিকার সম্পর্কে সচেতন করে তোলা, নারী মৎস্য শ্রমিকদেরকে সুরক্ষা আওতায় আনা, মৎস্য শ্রমিকদের সমস্যার বিষয়ে তাৎক্ষনিক ভাবে সিদ্ধান্ত নেয়ার ক্ষেত্রে সরকারের সাথে একটি মনিটরিং সেল তৈরি করা, একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পের ন্যায় মৎস্য শ্রমিকদের জন্য কল্যাণমুলক প্রকল্প গ্রহণ করা, পরিচয়পত্র দেয়ার বিধান থাকলে সেটি সঠিকভাবে বাস্তবায়ন করা, লাইফ জ্যাকেট, ওয়ারল্যাস বিতরণের ক্ষেত্রেমালিকদেরকে আগ্রহী করে তোলা, মৎস্য আহরণের ট্রলারে ট্র্যাকিং ডিভাইস সিস্টেম চালু করার বিষয়ে সুপারিশ করেন।