প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:  ক্রিকেটের মানদণ্ড হিসেবে বিবেচিত টেস্ট খেলতে হয় ঠাণ্ডা মেজাজে। টি-টোয়েন্টির মতো এতটা আক্রমণে না গিয়ে টেস্ট একটু রয়েসয়ে খেলতে হয়। কিন্তু ক্রিস গেইল, এবি ডি ভিলিয়ার্স এবং বীরেন্দ্রর শেবাগের মতো এমন অনেক ক্রিকেটার আছেন, যারা বাউন্ডারি মেরে টেস্ট ইনিংসের সূচনা করেছেন।

 

 

 

টেস্টের প্রথম বলে বাউন্ডারি হাঁকানোর আত্মবিশ্বাস যদি কারও থাকে তাহলে তাকে নিষেধ করা ঠিক হবে না। সে যেভাবে খেলে সফল তাকে সেভাবেই খেলার সুযোগ করে দেয়া উচিত। এমনটিই বলছেন বাংলাদেশ টেস্ট দলের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান।

 

 

 

 

উইন্ডিজের বিপক্ষে ঢাকা টেস্ট শুরুর ঠিক আগের দিন বৃহস্পতিবার মিরপুরে সাকিব বলেন, ‘আমি সবসময় ফিল করি যার খেলার ধরন যেটা সেটা থেকে বের না হতে। বীরেন্দ্রর শেবাগ টেস্ট ম্যাচে যদি ফার্স্ট বলে চার মারার সুযোগ পেত তাহলে সে তাই করত। আমার কাছে মনে হয় এই অ্যাপ্রচটা থাকা খুবই জরুরি।’

 

 

 

 

সাকিব আরও বলেন, ‘যে ব্যাটসম্যান টি-টোয়েন্টি বা ওয়ানডে ম্যাচে ফার্স্ট বলে চার মারার জন্য দাঁড়ায়, সেই ব্যাটসম্যানকে আমি কখনোই চাইব না টেস্ট ম্যাচে ফার্স্ট বল ডিফেন্ড করুক বা ছেড়ে দেক। আমি চাইব টেস্টে ফার্স্ট বলেও সে চার মারার মাইন্ড সেট নিয়েই যাবে এবং চার মারবে। কারণ ওটাই ওর খেলা। ওইভাবে খেলেই সে সফল এবং এই খেলা দেখেই কিন্তু টিম সিলেক্টররা তাকে নির্বাচিত করেছে।’