আবদুর রহমান,ছারছীনা:আমীরে হিযবুল্লাহ ছারছীনার পীর ছাহেব আলহাজ্ব হযরত মাওলানা শাহ্ মোহাম্মদ মোহেব্বুল্লাহ (মা. জি. আ.) বলেছেন- আমরা এমন এক দরবারে এসেছি যে দরবারের প্রতিষ্ঠাতা আল্লামা শাহ্সূফী নেছারুদ্দীন আহমদ (রহঃ) এই বাংলার বুকে এমন এক সময় ইসলামের সঠিক দাওয়াতের কাজ শুরু করেছিলেন যখন বাংলার জমীন বাতিল তথা ভ্রান্ত আক্বীদা, বদ আমল এবং বিভিন্ন কুসংস্কারে পরিপূর্ণ হয়ে গিয়েছিল। আহলুস্সুন্নাত ওয়াল জামায়াতের আক্বীদার উপর এ দরবার প্রতিষ্ঠিত হয়েছিলো বিধায় আলহামদুলিল্লাহ আজ পর্যন্ত এখনো একইভাবে প্রতিষ্ঠিত আছে এবং সমস্ত কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। আপনারা সকলে দোয়া করবেন যেন এই আক্বীদার উপর কেয়ামত পর্যন্ত প্রতিষ্ঠিত থাকে। আক্বীদার প্রশ্নে আমরা কারো সাথে আপোষ করতে পারিনা। কারণ আক্বীদা সঠিক না হলে কোন নেক আমলেরই মূল্য নেই। আক্বীদার ক্ষেত্রে কঠোর অবস্থানই এ দরবারের অন্যতম বৈশিষ্ট্য।

গতকাল ছারছীনা দরবার শরীফের ১২৮ তম তিনদিনব্যাপী বার্ষিক মাহফিলের ২য় দিন বাদ ফজর হযরত পীর ছাহেব কেবলা একথা বলেন।
মাহফিলের ২য় দিন বাদ মাগরীব হযরত পীর ছাহেব কেবলার বড় ছাহেবজাদা ও ছারছীনা দারুচ্ছুন্নাত জামেয়া-এ নেছারিয়া দীনিয়ার সম্মানিত রঈস ও বাংলাদেশ জমইয়াতে হিযবুল্লাহর সিনিয়র নায়েবে আমীর আলহাজ্ব হযরত মাওলানা শাহ্ আবু নছর নেছারুদ্দীন আহমদ হুসাইন আলোচনায় বলেন- আমরা এখানে এসেছি নিজের আত্মাকে পরিশুদ্ধ করে একজন পরিপূর্ণ মু’মিন হতে। আর এই আত্মশুদ্ধি করতে হলে আমাদেরকে আত্মার চিকিৎসকের কাছে যেতে হবে। তারা হলেন হক্কানী আওলিয়ায়ে কেরাম, পীর-মাশায়েখগণ। তাঁরা আমাদের সঠিক পথের দিশা দিবেন যাতে করে আমরা ভ্রান্ত পথ থেকে মুক্তি পেয়ে আল্লাহওয়ালা জীবন যাপন করার প্রয়াস পাব।

এ ছাড়াও ইসলামের গুরুত্বপূর্ণ বিষয়াবলীর উপর আলোচনা করেন- হযরত পীর ছাহেব কেবলার ছোট ছাহেবজাদা আলহাজ্ব হযরত মাওলানা শাহ্ আবু বকর মোহাম্মদ ছালেহ নেছারুল্লাহ, ছারছীনা দারুচ্ছুন্নাত আলীয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ ড. সৈয়দ মুহাঃ শরাফত আলী, উপাধ্যক্ষ মাওলানা মোঃ রুহুল আমিন ছালেহী, ছারছীনা দারুচ্ছুন্নাত জামেয়া-এ নেছারীয়া দীনিয়ার নায়েবে মুদীর মাওলানা মোঃ মামুনুল হক, বাংলাদেশ যুব হিযবুল্লাহর কেন্দ্রীয় সভাপতি মাওলানা কাজী মোঃ মফিজ উদ্দীন, দারুন্নাজাত সিদ্দিকীয়া কামিল মাদ্রাসার মুহাদ্দিস আলহাজ্ব মাওলানা বদরুজ্জামান রিয়াদ প্রমূখ।

এ ছাড়াও অন্যান্যের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশ জমইয়তে হিযবুল্লাহর নায়েবে আমীর ও হযরত পীর ছাহেব কেবলার বড় জামাতা আলহাজ্ব হযরত মাওলানা মির্জা নূরুর রহমান বেগ, অতিরিক্ত নাজেমে আ’লা মাওলানা মোঃ আলী আকবর, হযরত পীর ছাহেব কেবলার মেঝ জামাতা ও ঢাবির আরবী বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. হাফেজ মাওলানা মোঃ রুহুল আমিন, ইউনাইটেড ঢাকা জমইয়তে হিযবুল্লাহর সভাপতি সাবেক জেলা ও দায়রা জজ্ব আলহাজ্ব মোঃ ইসমাইল হোসেন প্রমূখ।

আজ মাহফিলের শেষ দিন। বাদ জুময়া দেশ, জাতি ও মুসলিম উম্মাহর শান্তি কামনা করে হযরত পীর ছাহেব কেবলা আখেরী মুনাজাত পরিচালনা করবেন।