প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:    বিএনপির হেভিওয়েট নেতা চট্টগ্রাম -৫ আসনের প্রার্থী মীর মোহাম্মদ নাসিরের মনোনয়ন বাতিলই থাকল। মামলা সংক্রান্ত কারণে তার প্রার্থিতা বাতিল হয়েছে।বৃহস্পতিবার মধ্যাহ্ন বিরতির আগে মীর নাসিরের আপিল শুনানি শুরু হলেও পরে তারটা স্থগিত রাখা হয়। বিরতির পর শুনানি শেষে তার প্রার্থিতা বাতিল করা হয়।ইসির এ সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়ে নাসির দাবি করেন, ইসির এ রায় পূর্বপরিকল্পিত।

 

 

 

 

প্রার্থিতা বাতিলের পর এজলাস থেকে বের হয়ে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় মীর নাসির সাংবাদিকদের বলেন, ‘এখানে তামাশা করা হচ্ছে। তাদের সিদ্ধান্ত পূর্বনির্ধারিত। আমারটা একেবারে রিজেক্ট করে দিয়েছে। পেন্ডিং রাখলেও তো হতো।’তিনি বলেন, আগেই ভেবেছিলাম এখানে এসে সঠিক বিচার পাওয়া যাবে না। আমাদের মতো বাইরের লোকদের এখানে ডেকে তামাশা মঞ্চস্থ করা হচ্ছে। সব কিছু পূর্বপরিকল্পিত।

 

 

 

 

 

‘আমি কমিশনকে বলেছি- তারা সরকারের পুতুল হিসেবে কাজ করছে। আপনারা নিজেদের আইন নিজেরাই ভঙ্গ করেছেন।’তিনি আরও বলেন, ‘কমিশনের আইন হলো কারো বিরুদ্ধে দণ্ডাদেশ স্থগিত থাকলে তার নির্বাচনে অংশ নিতে বাধা নেই। অথচ, কমিশন নিজের আইন নিজেই ভঙ্গ করেছে।’