প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:    গর্ভাবস্থায় নারীদের স্বাস্থ্যের অনেক পরিবর্তন হয় ও সমস্যার মুখোমুখি হন। যারা প্রথমবার সন্তান ধারণ করেন, তাদের সমস্যাটা একটু বেশিই হয়। কারণ প্রথম সন্তানের ক্ষেত্রে নতুন মায়ের সব অভিজ্ঞতাগুলো নতুন। তাই প্রথম সন্তানের জন্মের পর দ্বিতীয় সন্তানের সময়গুলো অনেক সহজ মনে হয়।

 

 

 

 

তবে গর্ভাবস্থায় ভ্রমণে মা শিশুর কোনো ক্ষতি হয় কিনা এ নিয়ে অনেক চিন্তায় থাকেন নুতুন মায়ের প্রিয়জনেরা। তাই সাধারণত মায়েরা গর্ভাবস্থায় কোথাও যেতে চান না। প্রায় পুরো বছর ধরে দূরে কোথাও যাওয়াকে এ সময় গর্ভের শিশুর জন্য ঝুঁকিপূর্ণ মনে করেন। তবে বিশেষজ্ঞরা বলেন, গর্ভাবস্থায় ভ্রমণে কোনো বাধা নেই।

 

 

 

 

আসুন জেনে নেই গর্ভাবস্থায় ভ্রমণ কি নিরাপদ। প্রথম ৩ মাসে: গর্ভাবস্থার ভ্রমণ করা যাবে তবে প্রথম তিন মাসে গর্ভপাতের সম্ভাবনা বেশি থাকে এ সময় দীর্ঘ ভ্রমণ না করাই ভালো।ঝাঁকুনি: রাস্তায় যদি কোথাও যেতে হয় অবশ্যই ঝাঁকুনি হয় এমন রাস্তায় যাওয়া যাবে না। এছাড়া দূরে যেতে হলে একা না যাওয়া ভালো।

 

 

 

 

সিট বেল্ট: গর্ভাবস্থায় যদি কোনো মা ভ্রমণে যান তবে পেটের ওপরে সিট বেল্ট লাগানো উচিত নয় এতে অতিরিক্ত চাপের সৃষ্টি হতে পারে।এটা মা ও শিশুর জন্য ক্ষতিকর।ভ্রমণের টিকা: অনেক দেশে পর্যটকদের জন্য বিশেষ কিছু টিকার উল্লেখ থাকে।সেই সব দেশে যাওয়ার আগে টিকাগুলো নিয়ে নিতে হবে।

 

 

 

 

 

ভারি ব্যাগ বহন: গর্ভাবস্থায় ভুলেও ভারি ব্যাগ বহন করা যাবে না।কয়েক দিনের জন্য যদি কোথাও যেতে হয় তবে অবশ্যই নিজের চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করে নিন।কি ধরনের খাবার খাবেন: ভ্রমণের সময় অবশ্যই পানির বোতল সঙ্গে রাখবেন। এছাড়া সঙ্গে ফল বা হালকা খাবার রাখতে পারেন। আপনি বেশি ক্ষুধার্ত থাকেন তবে মসলাযুক্ত নয়, ঘরে তৈরি খাবার খেতে পারেন।