প্রথমবার্তা,প্রতিবেদকঃ   অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের (ইআরডি) কর্মকর্তাদের বৈদেশিক ঋণচুক্তির শর্তসমূহ বাংলাদেশের অনুকূলে রাখার বিষয়টি নিশ্চিত করার নির্দেশ দিয়েছেন।

 

 

 

 

আজ বুধবার রাজধানীর শেরেবাংলানগর এনইসি সম্মেলনকক্ষে ইআরডির কর্মকর্তাদের সঙ্গে পরিচিতি সভায় তিনি বলেন, আপনাদের শক্ত অবস্থানে থেকে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক ও বৈদেশিক ঋণ সংস্থার সঙ্গে নেগোসিয়েশন করতে হবে, যাতে বাংলাদেশের স্বার্থ সমুন্নত থাকে। ঋণচুক্তির শর্তসমূহ বাংলাদেশের অনুকূলে রাখতে হবে।সভায় ইআরডি সচিব মনোয়ার আহমেদ বিভাগের চলমান কার্যক্রমের বিষয়ে ব্রিফ করেন।

 

 

 

 

 

অর্থমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ আজ পর্যন্ত বৈদেশিক ঋণের কিস্তি পরিশোধে এক ঘণ্টার জন্যও বিলম্ব করেনি। বাংলাদেশের বৈদেশিক ঋণ-জিডিপির অনুপাত মাত্র ১৩ দশমিক ২ শতাংশ। যেখানে ঝুঁকিমূক্ত মাত্রা হলো ৪০ শতাংশ। তাই ইআরডিকে বৈশ্বিক পর্যায়ে বাংলাদেশের ঋণ সক্ষমতার বিষয়টি তুলে ধরতে হবে।

 

 

 

 

 

ইআরডি কর্মকর্তাদের দেশের ঋণ সক্ষমতার অবস্থান ধরে রাখার আহ্বান জানিয়ে বলেন, আপনারা ঋণ সক্ষমতা ধরে রাখুন। তাহলে ভবিষ্যতে দেশের অবকাঠামো উন্নয়নের জন্য প্রয়োজনীয় বৈদেশিক অর্থায়ন সহজতর হবে।

 

 

 

 

মোস্তফা কামাল প্রকল্প বাছাইয়ের ক্ষেত্রে গ্রামীণ জীবনমান উন্নয়নের সাথে সংশ্লিষ্ট ছোট আকারের প্রকল্পে ঋণ সহায়তার প্রাধিকার প্রদানের নির্দেশনা দেন। একই সঙ্গে তিনি ইআরডির কার্যক্রম আরো গতিশীল করার প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেন।