প্রথমবার্তা,প্রতিবেদকঃ   ঢাকার ধামরাইয়ে আব্দুস সালাম (৫৫) নামের এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ শুক্রবার (১১ জানুয়ারি) সকালে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের বাথুলী এক্সেল লোড কন্ট্রোল স্টেশনের পূর্ব পাশ থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।নিহত আব্দুস সালাম ধামরাইয়ের গাংগুটিয়া ইউনিয়নের উত্তর হাতকোড়া গ্রামের মৃত আনছার আলীর ছেলে। তিনি উত্তর হাতকোড়া গুচ্ছগ্রামে বাস করতেন। তার স্ত্রী অনেক আগেই মারা গেছেন।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

এলাকাবাসী জানায়, গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে বারবারিয়া বাসস্ট্যান্ডে যাওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে বের হন আবদুস সালাম। এরপর রাতে আর বাড়ি না ফেরায় স্বজনরা বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি শুরু করেন। আজ শুক্রবার সকালে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের বাথুলি এক্সেল লোড কন্ট্রোল স্টেশনের কাছে একটি ভুট্টা ক্ষেতের পাশে আবদুস সালামের লাশ পড়ে থাকতে দেখে এলাকাবাসী। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশটি উদ্ধার করে। পরে ময়নাতদন্তের জন্য তা ঢাকার শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়। তবে নিহতের শরীরে কোন আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি বলে জানায় পুলিশ।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

এ বিষয়ে একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে। নিহতের পাশেই পড়েছিল তার ব্যবহৃত জুতা ও একটি টর্চ লাইট। এ ছাড়া টিস্যু পেপার ও পানির বোতল পড়ে ছিল লাশের পাশে। এলাকাবাসী এ মৃত্যুর বিষয়টি রহস্যজনক বলে মনে করছে।ধামরাই থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দীপক চন্দ্র সাহা বলেন, লাশের শরীরে আঘাতের কোনো চিহ্ন নেই। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পাওয়ার পরই মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।আবদুস সালামের স্ত্রী মারা গেছেন অনেক আগে। তার দুই ছেলে। এক ছেলে বিদেশে থাকেন।