প্রথমবার্তা,প্রতিবেদকঃ   সাফিনা তুমহে কুকিং আতি হ্যায়?’ উত্তরে সাফিনা রূপী আলিয়াকে বলতে শোনা যাচ্ছে, ‘নেহি লেকিন আগর সবকুছ সহি রহা একদিন ম্যায় আপকি লিভার ট্রান্সপ্ল্যান্ট কর সকতি হুঁ।’ অর্থাৎ রান্না করতে পারো কিনা তার উত্তরে আলিয়া বলছেন, সবকিছু ঠিক থাকলে আমি আপনার লিভার প্রতিস্থাপন করতে পারি। এমন উত্তর শুনে প্রশ্নকর্তা ঘাবড়ে যাবেন সেটাই স্বাভাবিক নয় কি? সাফিনাকেও যিনি প্রশ্ন করেছিলেন তারও এমন হালই হয়েছিল।

 

 

 

 

 

 

বৃহস্পতিবার মুক্তি পাওয়া ‘গলি বয়’-এর ট্রেলারে এমনই ‘টম বয়’ চরিত্রে দেখা গেছে আলিয়াকে। যাকে কিনা পাতি বাংলায় বলে ‘চোখে মুখে কথা বলা’ মেয়ে। এখানেই শেষ নয়। সাফিনা অর্থাৎ আলিয়াকে তার র্যা প গায়ক প্রেমিককে বলতে শোনা যাচ্ছে, ‘কোয়ি মেরে বয়ফ্রেন্ডকে সাত গুলু গুলু করেগি তো ধোপদোঙ্গি না উসকো।’ প্রেমিকার মুখে এমন কথা তার র্যা প গায়ক প্রেমিক বলেন ‘বহুত বড়ি গুন্ডি হ্যায় না তু?’

 

 

 

 

 

 

 

শুধু প্রেমিক রণবীর কেনো, আলিয়াকে এভাবে দেখে যেকেউ তাকে ‘গুন্ডি’ই বলবেন সেটাই স্বাভাবিক। এমনকি আলিয়ার বাবা খ্যাতনামা পরিচালক প্রযোজক মহেশ ভাটও মেয়েকে গুন্ডি বলেই অভিহিত করলেন। টুইট করে সেকথা লিখলেন তিনি।

ছবির ট্রেলারে আলিয়া এই ডায়ালগ ছবির আরো একজন নায়িকা কালকি কোয়েচলিনের উদ্দেশ্যে বলছেন কিনা তা অবশ্য বোঝা যায় নি। এখানেই শেষ নয়, ট্রেলরে রণবীরকে যখন আলিয়া প্রতিশ্রুতি দেন, আর তিনি এমনটা করবেন না। তখন রণবীর তার কসম খেতে বলেন, উত্তরে আলিয়া বলেন মর জায়েগি তু। মানে আবারও আলিয়া অর্থাৎ সাফিনা এমন কাজ করতেই পারেন, এবিষয়ে তার নিজের উপরও বিশ্বাস নেই। পুরো ছবিটা ছুড়েই আলিয়া যে গুন্ডামি করেছেন তা আলিয়া নিজেও ট্রেলার লঞ্চ অনুষ্ঠানে এসে স্বীকার করে নেন।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

প্রসঙ্গত ‘গলি বয়’ ছবিটি বিখ্যাত র্যা প গায়ক ডিভাইন ও নেজির জীবনী অবলম্বনে তৈরি। তবে শুধু আলিয়াই নয়, ট্রেলরে রণবীরকে দেখেও মুগ্ধ সিনেমাপ্রেমী থেকে শুরু করে বলি তারকারা।

ভিডিও দেখতে ক্লিক করুন

সূত্র: জিএন