প্রথমবার্তা,প্রতিবেদকঃ   ব্রিটেনে ২০০৬ সালের পর থেকে প্রজাপতি ও মৌমাছির সংখ্যা আশঙ্কাজনকভাবে কমছে। ঋতুতে সমস্যা ও গ্রীষ্মকাল ঠিক মতো না হওয়াতে এমনটি হচ্ছে বলে ধারণা করছে দেশটির ন্যাশনাল ট্রাস্ট। গত একদশক ধরে ব্রিটেনের আবহাওয়াতে ভারসাম্যহীনতা এসেছে।

 

 

 

 

 

জুন, জুলাই ও আগস্টে আর্দ্র আবহাওয়ার কারণে ঘাসের পরিমাণ বেড়ে গেছে কিন্তু বুনো ফুলের পরিমাণ কমিয়ে দিয়েছে। ফলে প্রজাপতি ও মৌমাছির পরিমাণ কমেছে।এটা দেশটির শস্য ও ফল-ফুলের চাষাবাদে নেতিবাচক প্রভাব রাখবে। এটা বলার অপেক্ষা রাখেনা ফুলের পরাগায়নে প্রজাপতি ও মৌমাছির ভূমিকা কতটা গুরুত্বপূর্ণ।

 

 

 

 

 

প্রকৃতির ভারসাম্য রক্ষা করার ক্ষেত্রে এই ছোট্ট পতঙ্গগুলো অনেক বড় ভূমিকা পালন করে। কিন্তু ব্রিটেনের ঋতু পরিবর্তন প্রজাপতি ও মৌমাছির পরিমাণ কমিয়ে দিয়েছে। ব্রিটেনের কোনো কোনো শহরে তাদের পরিমাণ ৭০ থেকে ৮০ ভাগ পর্যন্ত কম দেখা যাচ্ছে।

 

 

 

 

 


ব্রিটেনের অভিজ্ঞতা থেকে বিশ্বের অন্য দেশগুলোও শিক্ষা নিতে পারে। পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা এবং আমাদের খাদ্য উত্পাদনের স্বার্থেই প্রজাপতি ও মৌমাছি দরকারী। আমাদের অস্তিত্ব রক্ষার্থে অনেক বড় ভূমিকা রাখে এই ছোট্ট কীট-পতঙ্গগুলো!সূত্র: টেলিগ্রাফ