প্রথমবার্তা,প্রতিবেদকঃ  যুক্তরাষ্ট্রের ইউটা অঙ্গরাজ্যের এক যমজ শিশুর ভিডিও সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বেশ ভাইরাল হয়েছে। সিসি ক্যামেরায় ধারণকৃত ভিডিওটি ২ বছর বয়সী যমজ শিশুর। ভিডিওটিতে দেখা যায়, কক্ষে থাকা পোশাক রাখার আসবাবপত্র নিয়ে খেলার সময় ঘটে যায় মারাত্মক দুর্ঘটনা।

 

 

 

 

শিশু দুটি খেলাচ্ছলে সেই আসবাবপত্রে ওঠার চেষ্টা করলে সেটি তাদের উপর পড়ে। একজন সৌভাগ্যক্রমে ছিটকে পড়লেও তার অপর ভাই আসবাবপত্রের নীচে চাপা পড়ে। এসময় রক্ষা পাওয়া শিশুটিকে ভাইয়ের জন্য উদ্বিগ্ন হতে দেখা যায়। ছোট্ট শরীরে সে ভারী আসবাবপত্রটি উঠিয়ে ভাইকে উদ্ধারের চেষ্টা চালায়। তবে তাকে বিফল হতে হয়।চাপা পড়া ভাইটিও নিজেকে বের করার চেষ্টা করছিল। কারও সাহায্য না চেয়ে কিংবা কান্নাকাটি না করে আবারও উদ্ধারের চেষ্টা চালায় যমজ ভাইটি। একপর্যায়ে চাপা পড়া ভাইকে উদ্ধারে সে সফলও হয়।

 

 

 

 

 

পরে শিশুদ্বয়ের মা সাংবাদিকদের জানান, ঘরে থাকলেও শিশুদের উপর আসবাবপত্র পড়ার পুরো বিষয়টিই ছিল তার অজানা। এমনকি কোনো শব্দও তিনি শুনতে পাননি। সিসি ক্যামেরায় ধারণকৃত ভিডিও’র মাধ্যমে তিনি ঘটনাটি জানতে পারেন। তার ছোট্ট সন্তানেরা কারও সাহায্য ছাড়াই যে বিপদকে মোকাবেলা করেছে তা দেখে অভিভূত তিনি। এমন দুর্ঘটনা ঘটলেও দুটি সন্তানই তার সুস্থ আছে বলেও জানিয়েছেন।

 

 

 

 

 

এদিকে, যমজ শিশুদের বাবা ভিডিও ক্লিপটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শেয়ার করলে তা মুহুর্তেই ভাইরালে পরিণত হয়। অবশ্য ভিডিওটি তিনি মজার জন্য নয় বরং শিক্ষনীয় বিবেচনায় শেয়ার করেছিলেন। শিশুদের জন্য ঘরের আসবাবপত্র কতোটা বিপদজনক হতে পারে তাই বোঝাতে চেয়েছেন তিনি এই ভিডিও’র মাধ্যমে। ভিডিওটি শেয়ারের সময় জানিয়েছেন, অল্পের জন্য মারাত্মক দুর্ঘটনার হাত থেকে বেঁচে গেছে তার সন্তানেরা।

 

 

 

কেবিএ