প্রথমবার্তা,প্রতিবেদকঃ   ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাসের নেতৃত্বে ছাত্রদলের এক নেতাকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে। হামলার শিকার বোরহান উদ্দিন বিশ্ববিদ্যালয়ের আরবি বিভাগের ২০১২-১৩ শিক্ষাবর্ষের ছাত্র এবং শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হল শাখা ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক।গতকাল বুধবার বিকেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ভবনসংলগ্ন মল চত্বর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত ছাত্রদল নেতাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে (ঢামেক) ভর্তি করা হয়েছে।

 

 

 

 

 

বোরহান জানান, ব্যক্তিগত কাজে তিনি রেজিস্ট্রার ভবনে গিয়েছিলেন। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাসের নেতৃত্বে ছাত্রলীগের ১০ থেকে ১৫ জন নেতাকর্মী তাঁর ওপর হামলা চালায়। মারধরের একপর্যায়ে তিনি জ্ঞান হারিয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন।ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদল সভাপতি আল মেহেদি তালুকদার বলেন, ‘ডাকসু নির্বাচনে প্রার্থী হতে চাওয়ায় ছাত্রলীগ তাকে মেরেছে। বিশ্ববিদ্যালয়ে সহাবস্থান নিশ্চিত না করেই প্রশাসন কেন ডাকসু নির্বাচনের তারিখ দিয়েছে তা জানতে চাই। আমরা এই হামলার বিচার চাই।’

 

 

 

 

 

 

 

অভিযোগ অস্বীকার করে ছাত্রলীগ সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাস  বলেন, ‘এ বিষয়ে কিছু বলতে পারি না। আমি ক্যাম্পাসের বাইরে আছি।’এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক এ কে এম গোলাম রব্বানী বলেন, ‘ঘটনা সম্পর্কে অবহিত হয়েছি। অভিযোগের বিষয়ে লিখিতভাবে জানাতে বলা হয়েছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখতে একজন সহকারী প্রক্টরকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। অভিযোগ খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’