প্রথমবার্তা,প্রতিবেদকঃ   জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলায় নবগঠিত বকশীগঞ্জ পৌরসভার প্রথম নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. নজরুল ইসলাম সওদাগর জগ প্রতীকে ৯ হাজার ৩৮৬ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন।রবিবার একটি স্থগিত কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ শেষে রাত ৮টায় মোট ১২টি কেন্দ্রের বেসরকারি ফলাফল ঘোষণা করেন দায়িত্বপ্রাপ্ত রিটার্নিং কর্মকর্তা।

 

 

 

 

 

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ২০১৭ সালের ২৮ ডিসেম্বর বকশীগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচনে ১২টি কেন্দ্রের মধ্যে এক নম্বর ওয়ার্ডের মালিরচর হাজিপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ব্যালট পেপার ছিনতাইয়ের ঘটনায় ভোট গ্রহণ স্থগিত করা হয়েছিল। পরবর্তীতে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শাহীনা বেগম নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগে আদালতে মামলা দায়ের করলে তিনদফা নির্বাচনের তারিখ পেছায়। অবশেষ আদালত ওই মামলার কার্যক্রম স্থগিত করে।এর প্রেক্ষিতে নির্বাচন কমিশন রবিবার নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করেন। স্থগিত ওই কেন্দ্রে শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ভোটগ্রহণ শেষে বকশীগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ আশিকুর রহমান সরকার ১২টি ভোট কেন্দ্রের ভোট যোগ করে বেসরকারি ফলাফল ঘোষণা করেন।

 

 

 

 

প্রাপ্ত বেসরকারি ফলাফলে দেখা যায়, আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. নজরুল ইসলাম সওদাগর জগ প্রতীকে ৯ হাজার ৩৮৬ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম বিএনপির ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী মো. ফখরুজ্জামান মতিন পেয়েছেন ৭ হাজার ৭৬৮ ভোট। আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শাহীনা বেগম ৫ হাজার ৪৭৪ ভোট পেয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছেন।বকশীগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ আশিকুর রহমান সরকার কালের কণ্ঠকে বলেন, স্থগিত থাকা কেন্দ্রটিতে রবিবার শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ শেষে বেসরকারি ফলাফল ঘোষণা করা হয়েছে।