প্রথমবার্তা,প্রতিবেদকঃ    মুক্তমনা ব্লগের প্রতিষ্ঠাতা ও লেখক অভিজিৎ রায় হত্যাকাণ্ডের ৪ বছর পর অভিযোগপত্র (চার্জশিট) প্রস্তুত করা হয়েছে। চার্জশিট অনুমোদনের জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছে পুলিশ। অনুমোদন  পেলে তা আদালতে দাখিল করা হবে। আজ গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঢাকা  মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া ও পাবলিক রিলশন্স বিভাগ।

 

 

 

 

চার্জশিটে হত্যাকাণ্ডের মূল পরিকল্পনাকারী মেজর (বরখাস্তকৃত) সৈয়দ মোহাম্মদ জিয়াউল হক ওরফে মেজর জিয়াসহ মোট ৬ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। এ মামলার অন্য আসামিরা হচ্ছেন-  মোজাম্মেল হুসাইন ওরফে সায়মন (সাংগঠনিক নাম শাহরিয়ার), আবু সিদ্দিক সোহেল ওরফে সাকিব ওরফে সাজিদ ওরফে শাহাব, আকরাম হোসেন ওরফে আবির, মো. মুকুল রানা ওরফে শরিফুল ইসলাম ওরফে হাদী, মো. আরাফাত রহমান, শফিউর রহমান ফারাবী।

 

 

 

২০১৫ সালের ২৬শে ফেব্রুয়ারি রাতে একুশের বইমেলা চলাকালে বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণ থেকে  বের হওয়ার পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসির কাছে ফুটপাতে কুপিয়ে হত্যা করা হয় অভিজিৎ রায়কে। ওই সময় তার সঙ্গে থাকা স্ত্রী বন্যা আহমেদও হামলার শিকার হয়ে একটি আঙুল হারান।

 

 

 

 

পদার্থবিদ অধ্যাপক অজয় রায়ের ছেলে অভিজিৎ থাকতেন যুক্তরাষ্ট্রে। বিজ্ঞানের নানা বিষয় নিয়ে  লেখালেখির পাশাপাশি মুক্তমনা ব্লগ সাইট পরিচালনা করতেন তিনি।।