প্রথমবার্তা,প্রতিবেদকঃ  তাইওয়ানের বিমানবন্দরে দেখা গেল এক গর্ভবতী নারীকে। হাতে একটি সাদা ব্যাগ। তিনি একটি ওয়াশরুমে প্রবেশ করলেন। কিন্তু সেখান থেকে বের হয়ে আসার পরে দেখা গেল, তার তলপেট আরও বেশি ফোলা দেখাচ্ছে।

 

 

 

 

 

এখান থেকেই সন্দেহ হয় বিমানবন্দরের নিরাপত্তাকর্মীদের। তারপরে কেঁচো খুঁড়তে বের হয়ে পড়ে সাপ। এরপর ওই নারীকে ধরে নিয়ে এসে পরীক্ষা করাতেই দেখা যায়, তার গর্ভাবস্থা আদ্যন্ত নকল। নকল গর্ভের আড়ালে তিনি চোরাচালান করছিলেন দু’টি দামি পারসিয়ান বিড়াল।

 

 

 

 

 

জানা গেছে, সেই অঞ্চলের বিখ্যাত ক্যাট ব্রিডার চ্যাং চিন গত ৫ ফেব্রুয়ারি পুলিশে অভিযোগ জানান যে তার দু’টি দামি পারসিয়ান বিড়াল চুরি গিয়েছে। এদের এক একটির দাম ৩৩০০ মার্কিন ডলার। টাকার হিসাবে যার মূল্য ২ লাখ ৮০ হাজার টাকার কিছু বেশি।

 

 

 

 

 

 

ওই বিড়াল ব্যবসায়ী জানিয়েছেন, হংকং থেকে আগত এক নারী বিড়াল দু’টি কেনার জন্য তার কাছে কয়েকবার এসেছিলেন। তার সন্দেহ, ওই নারী চুরি করেছেন বিড়ালদের। তার বাড়ির বাইরের সিসিটিভি ফুটেজেও ওই নারীকে দেখা যায়।

 

 

 

 

 

পুলিশ ফেসবুক ঘেঁটে সেই নারীকে খুঁজে বের করে। এবং দেখতে পায় বিমানবন্দরে ধরা পড়া ওই নারীই তিনি। বিড়াল চোর সেই নারী আপাতত তাইওয়ান পুলিশের হেফাজতে। বিড়ালগুলির চ্যাং কবে ফেরত পাবেন, তা অবশ্য জানা যায়নি।