প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক: দুই দেশের মধ্যকার কূটনৈতিক টানাপোড়েনের মাঝেই এবার পাকিস্তানিদের ভিসা দেয়া বন্ধ করে দিয়েছে বাংলাদেশ। পাকিস্তানের ইসলামাবাদে বাংলাদেশ হাইকমিশনের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, প্রতিবাদস্বরূপ পাকিস্তানিদের জন্য ভিসা প্রদান বন্ধ রেখেছে হাইকমিশন।

 

 

 

 

চার মাস ধরে পাকিস্তানে বাংলাদেশ দূতাবাসের কাউন্সেলর (প্রেস) ইকবাল হোসাইনের ভিসার মেয়াদ বাড়ানোর আবেদন ঝুলিয়ে রাখার প্রেক্ষিতে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হেয়েছে। বাংলাদেশ দূতাবাসের ওই কর্মকর্তা বলেন, চলতি বছরের ৯ জানুয়ারি পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ভিসার মেয়াদ বাড়ানোর আবেদন করেন ইকবাল। দুইদিন পর নথিটি দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে যায়। খবর ইউএনবির।

 

 

 

 

 

গত বছরের নভেম্বর থেকে দূতাবাসে ভিসা অফিসার পদটি খালি রয়েছে। ইকবাল তার বর্তমান দায়িত্বের সঙ্গে অতিরিক্ত হিসেবে সে বিভাগের দায়িত্বও পালন করছেন। ইসলামাবাদ হাইকমিশনের কর্মকর্তা বলেন, ‘প্রতিবাদ হিসেবে গত এক সপ্তাহ ধরে ইকবাল হোসাইন পাকিস্তানিদের ভিসা দেয়া বন্ধ রেখেছেন। এটা কোনো সরকারি ঘোষণার মাধ্যমে বন্ধ নয়।’

 

 

 

 

মেয়ের সঙ্গে ইসলামাবাদে বসবাস করছেন ইকবাল। ভিসা না পাওয়ায় তার তার স্ত্রী ও ছেলে ঢাকায় আছেন। অপর একটি কূটনৈতিক সূত্র জানায়, ভিসা নেয়ার জন্য ইকবালের স্ত্রী ও ছেলেকে পাকিস্তান হাইকমিশনে ডেকে নেয়া হয়। কিন্তু সেখানে যাওয়ার পরে এক ঘণ্টার বেশি সময় অপেক্ষা করিয়ে তাদের পরে আসতে বলা হয়। তিনবার তাদের সঙ্গে একই ঘটনা ঘটে।

 

 

 

 

 

এদিকে গত ৩০ মার্চ ইকবালের ভিসা মেয়াদ শেষ হয়। এরপর পাকিস্তানের পক্ষ থেকে ভিসার মেয়াদ বাড়ানো হবে বলে বারবার আশ্বাস দেয়া হয়। এ বিষয়ে কয়েকটি বৈঠক এবং চিঠি চালাচালি হলেও সুরাহা হয়নি। অপরদিকে গত বছরের মার্চে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বাংলাদেশে তাদের নতুন হাইকমিশনার হিসেবে সাকলায়েন সায়েদাহর নাম প্রস্তাব করলেও বাংলাদেশ তা বাতিল বা গ্রহণ করেনি।