প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:  ভারতের দক্ষিণী চলচ্চিত্রের তুমুল জনপ্রিয় মুখ প্রকাশ রাজ। পর্দায় তার উপস্থিতি মানেই দর্শকপ্রিয়তা পাওয়া এক ছবি।চলতি বছরের শুরুতে ভারতের রাজনীতিতে সক্রিয় হয়েছিলেন তিনি। জানুয়ারি মাসের ২ তারিখে টুইট করে জানিয়েছিলেন , এবারের লোকসভা নির্বাচনে বেঙ্গালুরু থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে লড়বেন। সেভাবেই প্রস্তুতি নিয়েছিলেন।

 

 

 

 

 

 

২০১৪ সালের নির্বাচনে বিজেপির স্লোগান ‘আব কি বার মোদি সরকার’ এর অনুকরণে প্রকাশ রাজ স্লোগান দিয়েছিলেন ‘আব কি বার জনতা কি সরকার’।কিন্তু এতোসব পরিকল্পনা, আয়োজন সবই ভেস্তে গেল। বেঙ্গালুরু সেন্ট্রালে বিজেপি প্রার্থী পিসি মোহনের কাছে হেরে গেল তার ধর্মনিরপেক্ষ ভারত গড়ার লড়াই।

 

 

 

 

 

গতকাল হার স্বীকার করে ভোটের ফল তার গালে একটা জোরালো চড় দিয়েছে মন্তব্য করে নিজের অনুভূতি জানান এই জনপ্রিয় অভিনেতা।যদিও রোববার এক্সিট পোলের ফল দেখে তা খারিজ করে দিয়েছিলেন প্রকাশ রাজ।বিরোধী দলীয় প্রার্থী থেকে পিছিয়ে পড়েছেন জানতে পেরে এদিন গণনা কেন্দ্র ছেড়ে চলে যান তিনি।

 

 

 

 

 

এরপর ঘরে ফিরে টুইটে ক্ষোভ প্রকাশ করেন।নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে প্রকাশ রাজ লেখেন, ‘এ হার আমার গালে একটা খুব জোরে চড় মারল। আমি প্রস্তুত। হেনস্তা, অপমান আমার পথে আসতে চলেছে। ’তবু নিজের অবস্থান ও মতাদর্শে অনড় থাকবেন বলে জানান প্রকাশ রাজ।

 

 

 

 

 

টুইটে তিনি আরও লেখেন, ‘ধর্মনিরপেক্ষ ভারতের জন্য আমার লড়াই চলবে।’’এরপর তিনি তার সমর্থকদের উদ্দেশে লেখেন, ‘সামনে অসেক কঠিন যাত্রা অপেক্ষা করছে, মাত্র শুরু হয়েছে তার। এই যাত্রায় যারা আমার সঙ্গে ছিলেন, তাদের সবাইকে ধন্যবাদ।’

 

 

 

 

 

ধারণা করা হচ্ছিল, দক্ষিণের জনপ্রিয় দুই অভিনেতা কমল হাসান ও রজনীকান্তের মতো রাজনীতির মাঠে সফল হবেন প্রকাশ রাজ।শুরু থেকেই নিজের রাজনৈতিক অবস্থান নিয়ে লুকোচুরি করেননি প্রকাশ রাজ।প্রকাশ্যে একাধিকবার নরেন্দ্র মোদি সরকারের সমালোচনাও করতে দেখা গেছে।নির্বাচনে হেরে নিজের অবস্থান আবার একবার মনে করিয়ে দিলেন এই অভিনেতা।