প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:   ২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে স্মার্টফোন আমদানির ওপর ১০ শতাংশ থেকে শুল্ক বাড়িয়ে ২৫ শতাংশ করার প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। প্রস্তাবিত বাজেট পাস হলে দেশে তৈরি মোবাইল এবং আমদানিকৃত ফিচার ফোনের দাম কমে যাবে।

 

 

 

 

 

তবে প্রস্তাবিত বাজেটে স্মার্টফোনের দাম বেড়ে যাবে। একই সঙ্গে ফিচার ফোন এবং দেশি ও ফিচার ফোনের দাম কমবে। জানা গেছে, এবারের প্রস্তাবিত বাজেটে ব্যয় ধরা হয়েছে, পাঁচ লাখ ২৩ হাজার একশ ৯০ কোটি টাকা।

 

 

 

 

 

 

২০১৯-২০ অর্থ বছরের জন্য বৃহস্পতিবার অর্থমন্ত্রীর বাজেট বক্তৃতায় বলা হয়েছে, আইসিটি খাতের গুরুত্বপূর্ণ অনুষঙ্গ সেলুলার ফোন উৎপাদন ও সংযোজনে রেয়াতি সুবিধা প্রদানের কারণে স্থানীয় পর্যায়ে পাঁচ-ছয়টি সেলুলার ফোন উৎপাদন ও সংযোজনকারী প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে। এ খাতে বিদ্যমান সুবিধা অব্যাহত রেখে সেলুলার ফোন উৎপাদনের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় কতিপয় যন্ত্রাংশের আমদানির ক্ষেত্রে শুল্ক হ্রাসের প্রস্তাব করছি।

 

 

 

 

 

 

আমদানি পর্যায়ে ফিচার ফোন ও স্মার্টফোনে বর্তমানে ১০ শতাংশ আমদানি শুল্ক প্রযোজ্য রয়েছে। তবে নিম্নআয়ের মানুষরা ব্যবহার করছে ফিচার ফোন এবং স্মার্টফোন ব্যবহার করছে উচ্চবিত্তরা। সেসব বিবেচনা করে স্মার্টফোনে ২৫ শতাংশ শুল্ক বৃদ্ধির প্রস্তাব করা হয়েছে।