প্রথম বার্তা, অনলাইন ডেস্ক: ফেসবুকে বিকিনি পরা ছবি পোস্ট করেছিলেন এক তরুণী চিকিৎসক। এই ঘটনায় তার লাইসেন্স বাতিল করেছে কর্তৃপক্ষ। এমনটাই ঘটেছে মিয়ানমারে। ২৯ বছর বয়সী ওই ডাক্তারের নাম ন্যাং মে স্যান।

জানা গেছে, ন্যাং মে স্যান পাঁচ বছর ধরে ডাক্তারি পেশায় নিয়োজিত রয়েছেন। ফেসবুকসহ সোশ্যাল মিডিয়ার বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে নিজের নানা ভঙ্গির ছবি পোস্ট করেন ন্যাং স্যান। আর ওই ছবিগুলি বেশ সাহসী (বোল্ড) হয়ে থাকে। তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় স্বচ্ছ পোশাকে, কখনওবা সুইমিং কস্টিউমে নিজেকে প্রকাশ করে থাকেন।

ফেসবুকে সম্প্রতি বিকিনি পরা ছবি পোস্ট করেন তিনি। এতে ক্ষিপ্ত হয় মিয়ানমার সরকার, কেড়ে নেওয়া হয় লাইসেন্স। ন্যাং স্যানকে গত ৩ জুন মিয়ানমার মেডিক্যাল কাউন্সিলের পক্ষ থেকে চিঠি দেওয়া হয়।

ওই চিঠিতে জানানো হয়, ন্যাংয়ের পোশাক দেশের সংস্কৃতি আর ঐতিহ্যের বিরোধী। তাই তার লাইসেন্স বাতিল করা হলো।

এদিকে, ওই সিদ্ধান্তে একটুও বিচলিত নন এই তরুণী। বরং এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আদালতে গিয়েছেন তিনি।