প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:মহান আল্লাহতায়ালা বলেন, হে পুরুষ সম্প্রদায় আমি তোমাদের জন্য তোমাদের স্ত্রীকে হালাল করে দিয়েছি। যাতে করে তোমরা শয়তানের ধোঁকায় পরে বিপথগামী না হও।র্ম ও জীবনের আলোচনায় আজ আমরা জেনে নিব স্বামী-স্ত্রীর দোয়া, কখন সহবাস করা নিষিদ্ধ ও কিছু নিয়ম -দোয়া : ‘বিসমিল্লাহি জান্নিবিনা শাইত্বানা ওয়া জান্নিবিশ শাইত্বানা মা রাযাকতানা’ অর্থাৎ হে আল্লাহ আমাকে শয়তান হতে বাঁচার এবং আমার জন্য যা হালাল করেছ তাহা হইতে শয়তানকে বিতারিত করো।

 

 

 

 

সহবাস করা নিষিদ্ধ : (১) রোগী অবস্থায় সহবাস করলে তার রোগ আরো বেড়ে যায় এবং শরীরের ক্ষতি হবে, (২) শরীরে জ্বর ও বেশি গরমে সহবাস করলে পাগল হয়ে যাওয়ার সম্ভবনা থাকে, (৩) বৃদ্ধা ও বারবনিতার সঙ্গে সহবাস করলে আয়ু কমে যায়, (৪) হায়েজের অবস্থায় সহবাস করলে স্বামী-স্ত্রী দুই জনেরই রোগ হতে পারে, (৫) নিকৃষ্ট স্ত্রী সাথে সহবাস করলে নিকৃষ্ট সন্তান জম্ম লাভ করে

 

 

 

 

(৬) ভরা পেটে সহবাস করলে কঠিন রোগ হবে, (৭) অন্ধকার ঘরে ক্ষুদ্র বা নোংড়া জায়গায় সহবাস করলে চিরতরে স্বাস্থ্য নষ্ট হয়ে যায়, (৮) ভীষণ ক্ষুধার সময় সহবাস করলে শিথিল হয়ে যায়।

 

 

 

 

 

স্বামী স্ত্রী সহবাস করার কিছু নিয়ম কানুন: (১) রাত্রি দ্বি-প্রহরের আগে না করা।(২) ফলবান গাছের নিচে না করা, (৩) প্রথমে দোয়া পড়া, (৪) বিসমিল্লাহ বলে শুরু করা, (৫) সহবাস করার সময় নিজের স্ত্রীর রূপ দর্শন শরীর স্পর্শন ও সুফলের প্রতি মনো নিবেশ করা ছাড়া অন্য কোনো সুন্দরি স্ত্রী লোকের বা অন্য সুন্দরী বালিকার রুপের কল্পনা না করা, (৬) রবিবারে না করা, (৭) বুধবারের রাত্রে সহবাস না করা, (৮) চন্দ্র মাসের প্রথম এবং পনের তারিখ রাতে না করা