প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক: যারা নিয়মিত বিমানে যাতায়াত করেন না, তারাও জানেন মাঝেমধ্যেই মাঝ-আকাশে আতঙ্ক ছড়িয়ে হঠাৎ কেঁপে ওঠে বিমান। এই পরিস্থিতিতে পড়লে বিভিন্ন যাত্রী বিভিন্ন পন্থা অবলম্বন করেন। কেউ প্রার্থনা করেন, কেউ সিটবেল্ট টাইট করে নেন, কেউ ভয় পেয়ে চিৎকার শুরু করে দেন। আবার কেউ স্বাভাবিক থাকার চেষ্টা করেন।

 

 

 

 

কিন্তু হঠাৎ মাঝ আকাশে বিমান প্রচণ্ড কেঁপে উঠলে, বুকটা সবারই একটু কেঁপে ওঠে। বিমানের ভেতরকার এমনই এক ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গেছে।জানা গেছে, কোসোভোর প্রিস্টিনা থেকে উড়েছিল বিমানটি। সুইজারল্যান্ডের বাসেল যাচ্ছিল। মাঝ আকাশে বিপত্তি ঘটে। খুব জোরে কেঁপে ওঠে বিমানটি।

 

 

 

 

সেই সময় যাত্রীদের মোবাইল ক্যামেরায় ঘটনাটি ধরা পড়ে।ভাইরাল হওয়া ৩০ সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, এক নারী দাঁড়িয়ে মোটা পোশাক গায়ে দিচ্ছেন। আর ঠিক সেই সময় কেঁপে ওঠে বিমানটি। তার পাশেই ছিলেন এক বিমানকর্মী। তার হাতে পানীয়ের ট্রে ছিল। বিমান কেঁপে উঠতেই তিনি বিমানের ছাদের ধাক্কা খান।

 

 

 

 

হাতে থাকা সব পানীয় উল্টে যায় যাত্রীদের গায়ে। সবাই ভয়ে তটস্থ হয়ে পড়েন। এক নারী প্রার্থনা শুরু করেন। তারই পাশে বসা এক যাত্রী সিট বেল্ট ঠিক করে নেন।কয়েক জন যাত্রী জানান, তাদের গায়ে গরম পানি পড়েছে। ফলে ফোসকা পড়ে গেছে। ইউরো এয়ারপোর্টের এক মুখপাত্র সাংবাদিকদের জানান, ১০ জনের আঘাত লেগেছে।

 

 

 

 

বাকি আর কোনো অঘটন হয়নি। ঘটনার খবর পেয়েই বিমানবন্দরে বিপদকালীন দলকে তৈরি রাখা হয়েছিল। আহতদের স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।