প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় দুর্ঘটনাকবলিত উপবন এক্সপ্রেস ট্রেনের দুর্ঘটনাকবলিত পাঁচটি বগি উদ্ধারে কাজ শুরু করেছে রেলওয়ের প্রকৌশল ও ট্রাফিক বিভাগ। গত রাতে ট্রেনটি দুর্ঘটনায় পড়ে।

 

 

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ১৭টি বগির মধ্যে ১২টি বগি উদ্ধার করা হয়েছে। তবে লাইনচ্যুত পাঁচটি উদ্ধারকাজ চলছে।আজ সোমবার সকাল সাড়ে ৬টায় ট্রেনের ৫টি বগি উদ্ধার করে কুলাউড়া স্টেশনে নিয়ে আসা হয়। এর আগে রাতেই উপবনের সামনের ৭টি বগি যাত্রীদের নিয়ে ঢাকা পৌঁছায়।

 

 

অবশিষ্ট বগি উদ্ধার করার পর রেললাইন স্বাভাবিক করতে কত সময় লাগবে তা বলা সম্ভব নয় বলে জানিয়েছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। কারণ দুর্ঘটনায় সেতুটি যথেষ্ট ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তা মেরামত করতেও সময় লাগবে। দুর্ঘটনায় পতিত মূল ৫টি বগির মধ্যে ২টি বগি লাইনচ্যুত হয়ে খালের মধ্যে ছিটকে পড়েছে।

 

 

আর ৩টি বগি লাইনচ্যুত হয়ে রেললাইন বেঁকে গেছে। বগিগুলোও ভেঙে মুচড়ে গেছে। সেগুলো উদ্ধার করতে আরো সময় লাগবে বলে জানিয়েছে রেলওয়ে প্রকৌশল সূত্র।ঢাকাগামী উপবন এক্সপ্রেস ট্রেনটির এক্সট্রা ৩, ড, ঢ,ণ ও ত বগি লাইনচ্যুত রয়েছে। বগিগুলো উদ্ধারে কাজ করছে রেলওয়ের প্রকৌশল ও ট্রাফিক বিভাগ।

 

 

দুর্ঘটনার পর রাতেই ৭টি বগিকে ঢাকায় পাঠানো হয়। পরে সকালে উদ্ধারকারী একটি ট্রেন এসে আরো পাঁচটি বগি উদ্ধার করে কুলাউড়া স্টেশনে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। অবশিষ্ট বগি উদ্ধারে কাজ চলছে।